ঢাকা, মঙ্গলবার,১৬ জানুয়ারি ২০১৮

থেরাপি

ব্যাটারি

জোবায়ের রাজু

০৪ জানুয়ারি ২০১৮,বৃহস্পতিবার, ০০:০০


প্রিন্ট

আমি জব করি ন্যাশনাল গ্রুপ অব কোম্পানিতে। মাস শেষে যে বেতন পাই, তা দিয়ে আমার সংসার চলে রাজার হালে। আমার বস অনেক ভালো মানুষ। স্ত্রী ঊর্মিকে প্রায়ই বসের গল্প বলি। ঊর্মি বলে ‘একদিন তোমার বসকে বাসায় ইনভাইট করো।’
ইদানীং আমিও তা-ই ভাবছি। বসকে একদিন বাসায় দাওয়াত দিতে হবে। একা নয়। তার পুরো ফ্যামেলিকে। আগামী শুক্রবার দাওয়াত দিলে কেমন হয়!
আমি অফিসে। এখন দুপুরবেলা। কেয়ারটেকার আকরাম এসে বলল, ‘বস আপনাকে তার রুমে ডাকছে।’
আকরামের কথায় আমি ভয় পেয়ে গেলাম। বস ডাকছে কেন? কোনো অন্যায় করেছি না তো! বস তো সাধারণত তার কক্ষে তাকেই ডাকেন, যারা চাকরিতে অবহেলা করে। কক্ষে ডেকে দু-চারটা কথা শুনিয়ে দেন।
সে রকম কিছু না তো! কিন্তু আমার জানা মতে আমি এই কোম্পানিতে জব চলাকালীন কোনো কিছুতে গড়িমসি বা হেলা ফেলা করিনি। তবু দুরু দুরু বুক নিয়ে বসের কক্ষে গেলাম।
Ñডেকেছেন বস?
Ñহ্যাঁ, এভাবে নিচের দিকে তাকিয়ে আছেন কেন?
Ñইয়ে মানে...
Ñভয় পাচ্ছেন?
Ñইয়ে...
Ñ হা হা হা। আপনাকে কিন্তু আমার ব্যাপক পছন্দ।
Ñধ ধ ধন্যবাদ।
Ñআরে আপনি কাঁপছেন কেন? কিসের এত ভয়?
Ñনা মানে...
Ñহা হা হা।
বস হাসছেন। তার হাসি শুনে আমার ভয়ের মেঘ খানিকটা কেটেছে। পুরোপুরি নয়। পুরোপুরি না কাটার কারণ হচ্ছে বস এখনো আমাকে বলেননি এখানে ডেকে আনার কারণটি।
Ñবছর তো শেষ হয়ে গেল সেলিম সাহেব।
Ñজি বস।
Ñএবার আমাদের বিজনেসে অন্যান্যবারের থেকে বেশি লাভ হয়েছে।
Ñও আচ্ছা।
Ñব্যবসা এত ভালো হওয়ার পেছনে আপনারও অবদান আছে সেলিম সাহেব। আপনি অন্যদের মতো ফাঁকিবাজ নন, সময় মতো অফিসে আসেন, বার বার ছুটি চান না। সে কারণে আপনাকে আমার খুব পছন্দ।
Ñধন্যবাদ স্যার।
Ñআর তাই আমি খুশি হয়ে আপনাকে এই মোবাইলটা গিফট করলাম। এই নিন।
বস র‌্যাপিং পেপার মোড়ানো সুন্দর একটি গিফট বক্স আমার হাতে ধরিয়ে দিলেন। তাহলে এ ঘটনা? আমি ভাবছি কী না কী!
২.
ঊর্মির এমনিতে একটা মোবাইল লাগবে। যাক, ভালো হলো, বসের গিফট করা মোবাইল পেয়ে নতুন করে মোবাইল কেনার দায় থেকে রক্ষা পেলাম।
রাতে বাসায় আসার পর ঊর্মি এ ঘটনা শুনে আনন্দে আটখানা। র‌্যাপিং পেপার মোড়ানো মোবাইলের প্যাকেট থেকে মোবাইলখানা বের করলাম। কী সুন্দর নতুন মোবাইল।
হঠাৎ ঊর্মি আবিষ্কার করল মোবাইলের ভেতরে ব্যাটারি নেই।
Ñওমা! ব্যাটারি কই?
Ñভালো করে দেখো তো।
Ñদেখেছি। নেই।
Ñবলো কী?
সত্যি সত্যি মোবাইলের সাথে ব্যাটারি নেই। কেনার সময় বিক্রেতা ভুল করে রেখে দেয়নি তো! ঘটনা জানতে কল দিলাম বসকে।
Ñকী ব্যাপার সেলিম সাহেব? হঠাৎ ফোন?
Ñবস, মোবাইলের সাথে তো ব্যাটারি নেই।
Ñহ্যাঁ। ব্যাটারি আমি রেখে দিয়েছি। কেন, জানেন?
Ñ কেন বস?
Ñএবার তো অফিসে ভালো নাম করতে পেরেছেন বলে মোবাইল গিফট পেয়েছেন। সামনের বার আরো ভালো করলে ব্যাটারিটা পাবেন।
Ñওহ্ আচ্ছা।
ফোন রেখে দেয়ার পর ঊর্মি বলল, ‘বস কী বলেছে?’
আমি কোনো কথা না বলে চুপ করে বসে থাকি।

 

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫