গাজীপুরে কাভার্ডভ্যানের সাথে ট্রেনের সংঘর্ষ নিহত ২

গাজীপুর সংবাদদাতা

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সালনা মোল্লাপাড়া রেলক্রসিং এলাকায় খুলনাগামী চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সাথে মালবাহী কাভার্ডভ্যানের সংঘর্ষে দু’জন নিহত ও তিনজন আহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে একজন হলেন ময়মনসিংহের ফুলপুরের মো: সেলিম (২৭)। তিনি স্থানীয় টিএম ফ্যাশন কারখানায় লোডার পদে চাকরি করতেন। অন্যজনের (২৫) পরিচয় জানা যায়নি। আহতদের মধ্যে কাভার্ডভ্যান চালক সাইফুল ইসলাম (২৫) এবং কারখানার প্যাকিংম্যান আরমানের (২৬) নাম জানা গেছে।
জয়দেবপুর রেলওয়ে জংশনের পুলিশ ক্যাম্পের এস আই রকীবুল হক জানান, মঙ্গলবার রাতে স্থানীয় টিএম ফ্যাশন পোশাক কারখানার শিপমেন্টের পোশাক ভরে কাভার্ডভ্যানটি ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয়। পথে বেরিয়ারবিহীন মোল্লাপাড়া রেলক্রসিং পার হওয়ার সময় মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ভ্যানের সাথে খুলনাগামী চিত্রা এক্সপ্রেসের সংঘর্ষ হয়। এতে কাভার্ডভ্যানটি দুমড়ে-মুচড়ে যায় এবং ভ্যানের দু’জন নিহত ও আরো তিনজন আহত হন। দুর্ঘটনার পর ঢাকা-রাজশাহী রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এলাকাবাসী হতাহতদের উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছেন।
জয়দেবপুর রেলওয়ে জংশনের স্টেশন মাস্টার মো: শাহজাহান মিয়া জানান, রাত ৯টা ২০ মিনিটে তার জংশন থেকে চিত্রা ট্রেনটি খুলনার উদ্দেশে ছেড়ে গেছে। এর ১০ মিনিট পর সালনা এলাকায় গিয়ে কাভার্ডভ্যানের সাথে সংঘর্ষ হয়। এতে ট্রেনটির ইঞ্জিন বিকল ও ভ্যানটি দুমড়ে-মুচড়ে গেছে। দুর্ঘটনার পর জয়দেবপুর রেলওয়ে জংশনে দ্রুতযান, মৌচাক স্টেশনে পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনসহ আশপাশের স্টেশনগুলোয় কয়েকটি ট্রেন যাত্রাবিরতি করে। অন্য ট্রেনের ইঞ্জিন নিয়ে চিত্রা ট্রেনটি উদ্ধারের কাজ চলছে।
শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক প্রণয় ভূষণ দাশ জানান, ঘটনাস্থল থেকে চারজনকে হাসপাতালে আনা হয়। তাদের মধ্যে ময়মনসিংহের ফুলপুরের মো: সেলিম (২৭) নিহত এবং অন্য তিনজন গুরুতর আহত ছিল। আহতদের মধ্যে সাইফুল ইসলাম (২৫) ও অজ্ঞাত দু’জনকে মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.