চলতি মাসে উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে তীব্র শৈত্য প্রবাহ বয়ে যেতে পারে

নিজস্ব প্রতিবেদক

চলতি মাসে দেশের উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে তীব্র শৈত্য প্রবাহ বয়ে যেতে পারে। তবে তা একবারই বয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

অপরদিকে দেশের অন্যত্র এ মাসে দুই থেকে তিনটি মৃদু থেকে মাঝারী মানের শৈত্য প্রবাহের আওতায় আসতে পারে।
আজ সোমবার আবহাওয়া অফিস মাসব্যাপী পূর্বাভাসে জানিয়েছে, এ মাসেও দেশব্যাপী ঘন কুয়াশা পড়তে পারে। কখনো কখনো তা দুপুর পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়া দফতর ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি পর্যন্ত তাপমাত্রাকে মৃদু, ৬ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত তাপমাত্রাকে মাঝারী এবং ৪ থেকে ৬ পর্যন্ত সেলসিয়াস তাপমাত্রায় তীব্র শৈত্য প্রবাহ হিসেবে সংজ্ঞায়িত করে থাকে।

কুয়াশার পূর্বাভাসে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছেন, এ মাসে দেশের উত্তর, উত্তর-পূর্বাঞ্চল, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে এবং নদ-নদী অববাহিকায় মাঝারী/ঘন কুয়াশা এবং অন্যত্র হালকা/মাঝারী কুয়াশা পড়তে পারে। ঘন কুয়াশা পরিস্থিতি কখনও কখনও দুপুর পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। এ মাসে সামগ্রিকভাবে দেশে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

গত ডিসেম্বর মাসে সারাদেশে স্বাভাবিক অপেক্ষা অনেক বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে (+৩৮৫.১%)। গত ৩০ নভেম্বর আন্দামান সাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয় এবং তা ১ ডিসেম্বর একই এলাকায় সুস্পষ্ট লঘুচপে পরিণত হয়। এটি ৬ ডিসেম্বর দক্ষিণপূর্ব বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় নিম্নচাপে পরিণত হয়ে গত ৮ ডিসেম্বর গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয় এবং এটি ৯ ডিসেম্বর ভোর ৩টায় দুর্বল হয়ে উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগড়ব পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসার এলাকায় নিম্নচাপে পরিণত হয়। পরে রাত ৯টায় আরো দুর্বল হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচপে পরিণত হয়।

এর প্রভাবে ৭ ডিসেম্বর থেকে হতে ১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত রংপুর বিভাগ ছাড়া দেশের সব স্থানে হালকা থেকে মাঝারী ধরণের বৃষ্টি হয়। চট্টগ্রাম, নোয়াখালী ও কুমিল্লা অঞ্চলের কোথাও কোথাও ভারী বর্ষণ হয়।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.