ঢাকা, বুধবার,১৭ জানুয়ারি ২০১৮

শিক্ষা

জাতীয়করণের দাবিতে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী শিক্ষকদের অবস্থান ধর্মঘট

নিজস্ব প্রতিবেদক

০১ জানুয়ারি ২০১৮,সোমবার, ১৮:৩৮


প্রিন্ট

বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক রেজিস্ট্রেশনপ্রাপ্ত সব স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা জাতীয়করণের দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য অবস্থান ধর্মঘট করছেন শিক্ষকরা।

আজ সোমবার সকাল থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এ অবস্থান ধর্মঘট পালন করেন তারা। সারাদেশ থেকে আসা কয়েকশ’ শিক্ষক ধর্মঘটে অংশ নেন।

ধর্মঘটে ইবতেদায়ী মাসরাসা শিক্ষক সমিতির সভাপতি কাজী রুহুল আমিন চৌধুরী বলেন, ১৯৯৪ সালে একই পরিপত্রে রেজিস্ট্রার বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাসরাসার শিক্ষকদের বেতন ৫০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়। ২০১৩ সালে বর্তমান সরকার ২৬ হাজার ১৯৩টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করে। প্রাথমিকের ন্যায় স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাসরাসাগুলো শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। কিন্তু এসব প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ করা হয়নি। এতে করে হাজার শিক্ষক-শিক্ষিকা মানবেতর জীবনযাপন করছে।

গাইবান্ধার লাটশালা স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসার প্রধান শিক্ষক মাহবুবুর রহমান বলেন, ১৯৮২ সালে আমাদের প্রতিষ্ঠান চালু হয়। শুরু থেকে শিক্ষক-শিক্ষিকারা সব ধরনের শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। কিন্তু শিক্ষকরা বেতন ভাতা না পাওয়ায় পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতন জীবনযাপন করছে। স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসাগুলো জাতীয়করণ করে সরকার এসব শিক্ষক পরিবারের হাসি ফুটাবে।

শিক্ষক সমিতির মহাসচিব কাজী মোখলেছুর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর কাছে রেজিস্ট্রেনপ্রাপ্ত সব স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাসরাসা জাতীয়করণে হস্তক্ষেপ কামনা করছি। জাতীয়করণের ঘোষণা না হওয়া পর্যন্ত অনির্দিষ্টকালের জন্য অবস্থান ধর্মঘট চলবে।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সমিতির সিনিয়র সহ সভাপতি নজরুল ইসলাম, যুগ্ম-মহাসচিব আবু মুছা ভূইয়া, দপ্তর সম্পাদক ইনতাজ বিন হাকমি, সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সাধারণ সম্পাদক তাওহীদুল ইসলাম প্রমুখ।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫