ঢাকা, মঙ্গলবার,১৬ জানুয়ারি ২০১৮

বিবিধ

ভয়ঙ্কর কিছু ঘটবে ২০১৮ সালে?

নয়া দিগন্ত অনলাইন

০১ জানুয়ারি ২০১৮,সোমবার, ১৪:৫৪


প্রিন্ট
ভয়ঙ্কর কিছু ঘটবে ২০১৮ সালে?

ভয়ঙ্কর কিছু ঘটবে ২০১৮ সালে?

আরো একটা নতুন বছর চলে এলো। কী ঘটবে ২০১৮-তে? ভবিষ্যদ্বাণী করলেন জনপ্রিয় গণৎকার ক্রেগ হ্যামিলটন পার্কার। কে এই পার্কার? কেনই বা তার ভবিষ্যদ্বাণী উঠে এল শিরোনামে? তাহলে আগে জেনে নিন কে এই পার্কার।

ক্রেগ হ্যামিলটন পার্কার হলেন সেই ব্যক্তি, যিনি মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদের জন্য নির্বাচনের সময় নির্ভুলভাবে বলে দিয়েছিলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্পই হোয়াইট হাউসের তখতে বসবেন। পার্কারের জনপ্রিয়তার কারণ শুধু এটাই নয় কিন্তু! প্যারিসে নিস হামলার আগেও আগাম সতর্কবাণী শুনিয়েছিলেন তিনি। আঁচ করেছিলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছেড়ে বেরিয়ে যাবে ব্রিটেন। বুঝতেই পারছেন কেন তাকে নিয়ে এত মাতামাতি হয়। আর কেনই বা প্রথমসারির সমস্ত দৈনিকে তার এই ভবিষ্যদ্বাণী ফলাও করে ছাপা হয়।

অনেকেই পার্কারকে খ্যাপাটে বলেন। কেউ কেউ বলেন, তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন। কিন্তু তার অনুগামীরা এই সব রটনায় কান দিতে নারাজ। বিশ্বের যাবতীয় বড় ঘটনা বা দুর্ঘটনা যিনি আগে থেকেই আঁচ করতে পারেন, তাকে স্রেফ খ্যাপা বলতে রাজি নন পার্কারের অনুগামীরা। এবার সেই পার্কারই বছরের শুরুতে আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দিলেন, ঠিক কী কী ঘটতে চলেছে ২০১৮-তে। আর তার এই ভবিষ্যদ্বাণী কিন্তু অনেকেদের রাতের ঘুম কেড়ে নিতে বাধ্য। বিশেষ করে ভারতের অনেকের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

ক্রেগ হ্যামিলটন পার্কারের ভবিষ্যদ্বাণী, ভারতে এ বছর খুব বড় ধরনের বন্যা হবে। যার ফল হবে মারাত্মক। ক্ষয়ক্ষতি হবে প্রচুর। প্রাণহানি ও সম্পত্তির প্রভূত ক্ষয়ক্ষতি হবে। তবে কি ফের সুনামির মতো কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ নেমে আসবে ভারতের বুকে? সে বিষয়ে অবশ্য খোলসা করেননি তিনি।

তবে বলেছেন, ‘ভারতের পাশাপাশি চীনেও এই বন্যা ব্যাপক প্রভাব ফেলবে।’ তবে কি তার ভবিষ্যদ্বাণী ব্রহ্মপুত্রর পানি নিয়ে? ইতিমধ্যেই এই নদের পানি নিয়ে কিন্তু চীন ও ভারতের মধ্যে বেশ চাপানউতোর চলছে। এই পানি বাংলাদেশেও প্রবাহিত হয়। ফলে বাংলাদেশেরও উদ্বিগ্ন হওয়ার যথেষ্ট কারণ রয়েছে।

ভারতের অনেকে এমনও সন্দেহ করছে, চীন নানা রাসায়নিক ব্যবহার করে বা ব্রহ্মপুত্রর নিচে পারমাণবিক পরীক্ষা করছে। তবে কি সেরকমই কোনো পরীক্ষা চলাকালীন বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে যাবে? বা বেইজিং ইচ্ছা করে পানিপথে কোনো আঘাত হানবে? উত্তরটা সময়ই দেবে।

পার্কার আনো জানিয়েছেন, ২০১৮-তে উত্তর কোরিয়ার সাধারণ মানুষ সে দেশের সর্বাধিনায়ক কিম জং উনকে গদিচ্যুত করবেন। প্রবল বিদ্রোহ হবে, যাতে কিমের একাধিপত্য খানখান হয়ে যাবে। ব্রিটেনের এক জনপ্রিয় বড় রাস্তায় সন্ত্রাসবাদীরা বড়সড় হামলা চালাবে! পুলিশ ও প্রশাসন যথেষ্ট সতর্ক না থাকলে বহু মানুষের প্রাণহানি হবে বলেও সতর্ক করেছেন পার্কার। কীভাবে এই হামলা হবে, সেটাও এখনই জানিয়ে দিয়েছেন তিনি। আত্মঘাতী বোমা নয়, সন্ত্রাসীরা এবার ব্যবহার করবে ড্রোন। ড্রোনে মজুত থাকবে রাসায়নিক অস্ত্র। সেই অস্ত্রই আছড়ে পড়বে ব্রিটেনের রাজপথে।

ভবিষ্যদ্বাণীর তালিকা আরো লম্বা হয়েছে। ইটালির মাউন্ট ভিসুভিয়াসে অগ্নুৎপাত হবে এবছর। যার জেরে খালি করে দিতে নেপলস। অস্ট্রেলিয়া ও ক্যালিফোর্নিয়াতে ভয়াবহ দাবানলে প্রচুর গাছপালা ও প্রাণী পুড়ে মারা যাবে। পার্কারের আঁচ, এবছর আমেরিকার একটি বড় যুদ্ধজাহাজ ডুবিয়ে দেবে শত্রু। সেই শত্রু কি তবে চীন? এর উত্তরও একমাত্র সময়ই দিতে পারবে।

 

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫