ঢাকা, শুক্রবার,১৯ জুলাই ২০১৯

বাংলার দিগন্ত

ইসলামপুর হাসপাতালে ডাক্তার দম্পতিকে সন্তান অপহরণের হুমকি দিয়ে উড়ো চিঠি

ইসলামপুর (জামালপুর) সংবাদদাতা

০১ জানুয়ারি ২০১৮,সোমবার, ০০:০০


প্রিন্ট

ডাক্তার সঙ্কটে অচলবস্থা বিরাজ করছে জামালপুরের ইসলামপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। এর মধ্যে এক ডাক্তার দম্পতিকে দুইটি উড়ো চিঠি দিয়ে তাদের সন্তানকে অপহরণের হুমকি দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এতে ডা: সাইমুম শাহারিয়ার ও তার স্ত্রী ডা: ইসরাত জাহান তাদের ছেলেকে নিয়ে নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে রয়েছেন। এ ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ইসলামপুর থানা পুলিশকে মৌখিকভাবে জানিয়েছে বলে জানা গেছে।
জানা যায়, আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা: সাইমুম শাহারিয়ার ও তার স্ত্রী ডা: ইসরাত জাহান ইসলামপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দীর্ঘ দিন ধরে কর্মরত রয়েছেন। সম্প্রতি সন্ত্রাসীরা তাদের কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা চেয়ে পর পর দু’টি উড়ো চিঠি দিয়েছে বলে জানা গেছে। প্রথম চিঠিতে উল্লেখ করা হয়Ñ শুভ সকাল ডাক্তার সাহেব, আপনি যদি স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ভালোভাবে বাঁচতে চান তাহলে আগামীকাল রাত ১০টার মধ্যে হাসপাতালের সামেনে পুরাতন অ্যাম্বুলেন্সের নিচে ৫০ হাজার টাকা রেখে আসবেন। কোনো ঝামেলা করলে সন্তানের লাশ পাবেন। আমাদের লোক আপনাকে নজরে রাখছে। পরদিন দ্বিতীয় চিঠিতে বলা হয়Ñ ডা: সাইমুম শাহারিয়ার সাহেব গতকালের চিঠি পেয়েছেন কিনা জানি না। আপনি ঢাকা গিয়েছিলেন, সে জন্য আর একটি রাত সময় পেলেন। আগামীকাল রাত ৮টার মধ্যে যদি টাকা না পাই এবং আপনি যদি কোনো ঝামেলা করার চেষ্টা করেন তাহলে সন্তান হারাবেন ও স্ত্রীর মুখে অ্যাসিড পড়বে। খুব সাবধান, আমাদের লোক বন্ধুর মতো সব সময় আপনার পাশে রয়েছে। সন্ত্রাসীদের হুমকিতে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার সাহস না পেয়ে নিরাপত্তাহীনতা জন্য ডা: সাইমুম শাহারিয়ার অন্যত্র বদলির চেষ্টা করছেন বলে জানা গেছে।
ইসলামপুর থানা সূত্র জানায়, পুলিশ ঘটনা জানার পর দু’তিন দিন ওই ডাক্তার দম্পতির বাসায় নিরাপত্তা দিলেও বর্তমানে তা প্রত্যাহার করা হয়েছে।
ইসলামপুর থানার ওসি মুহাম্মদ শাহিনুজ্জামান খান জানান, এ ব্যাপারে থানায় কোনো লিখিত অভিযোগ না করায় আইনি ব্যবস্থা নেয়া যায়নি। তবুও পুলিশ নিজ দায়িত্ব থেকে ডাক্তার দম্পতির প্রতি দৃষ্টি রাখছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ৫০ শয্যার ইসলামপুর হাসপাতালে ৩৩ জন ডাক্তারের মধ্যে মাত্র তিনজন রয়েছেন। এদের মধ্যে নিরাপত্তাজনিত কারণে আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা: সাইমুম শাহারিয়ার ও স্ত্রী ডা: ইসরাত জাহান অন্যত্র বদলি হলে ডাক্তার সঙ্কটে হাসপাতালের চিকিৎসা কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যাবে।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: এ কে এম শহিদুর রহমান বলেন, ডাক্তার না থাকায় হাসপাতাল চালাতে পারছি না। এরই মধ্যে ডা: সাইমুমের এ ঘটনা সঙ্কট আরো প্রকট করে তুলেছে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫