ঢাকা, মঙ্গলবার,১৬ জানুয়ারি ২০১৮

অবকাশ

রাত পোহালেই ২০১৮

কাজী সুলতানুল আরেফিন

৩১ ডিসেম্বর ২০১৭,রবিবার, ০০:০০


প্রিন্ট

রাত পোহালেই নতুন ইংরেজি নববর্ষ ২০১৮। বিদায় ২০১৭ সাল। দেখতে দেখতে চলে গেল আরো একটি ইংরেজি বছর। ইদানীং বছরগুলো যেন খুব দ্রুত চলে যাচ্ছে। ইংরেজি নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে আমাদের মতো অনুন্নত দেশেও রাত ধরে চলবে অনেক জাঁকজমক আয়োজন। তবে এখন এসব বর্ষবরণ অনুষ্ঠান খুব কঠিন নজরদারিতে রাখা হয়। এসব আয়োজনকে ঘিরে অপ্রীতিকর কিছু না ঘটলেই আমাদের স্বস্তি। কিছু কুলাঙ্গার সব কিছুতেই অপ্রীতিকর কিছু ঘটানোর অপপ্রয়াস চালায়। সুখেদুঃখে কেটে গেল ২০১৭। দেশে বছরটিতে আলোচনা-সমালোচনার আধিক্য ছিল বেশি।
শেষ হলো আলোচনা-সমালোচনা আর সুখদুঃখে ভরা ২০১৭। চলে যাওয়া বছরে অনেকেই হারিয়েছেন অনেক কিছু আবার হয়তো অনেকের থলে ছিল প্রাপ্তিতে ভরা। স্বাভাবিক নিয়মেই ২০১৭ সালের শেষ তাই শুরু হলো ২০১৮ সাল। অর্থাৎ বিজোড় সালের বিদায় আর জোড় সালের আগমন। ভালো-মন্দে মানুষের মাঝে জোড় আর বিজোড়ের বন্দনা চলে! লোকমুখে প্রচলিত, ‘যায় দিন ভালো, আসে দিন খারাপ’। আসলে এগুলো কেবলই মন্তব্য। তবে আমাদের প্রত্যাশা নতুন বছরকে ঘিরে। আমাদের মতো উন্নয়নশীল দেশের মানুষের কাজ হচ্ছে নতুন বছরকে ঘিরে নতুন করে স্বপ্ন বোনা। পেছনের হাতাশা, ব্যর্থতা আর গ্লানি মুছে ফেলে সামনে এগিয়ে যাওয়া। অতীতের করে যাওয়া ভুল সংস্কার করে নতুন উদ্যমে পা ফেলা। বিজয়ের মাস ফেলে এসে নতুন বছরে আমাদের মমত্ববোধ হোক আরো দৃঢ়, আরো মজবুত। এই ২০১৮ সাল হোক নারী আর শিশু নির্যাতনমুক্ত। হিংসা, বিদ্বেষ, বৈষম্য আর হানাহানি চাই না। মতার জন্য সাধারণের প্রাণ বিসর্জন যেন আর না হয়। ব্যাংকলুটেরা, ঋণখেলাপি আর ঘুষখোরেরা শুধরে যাক নিজেদের ভুলগুলো। আইনের প্রতিষ্ঠা হোক নতুন করে মানবতার কল্যাণে। জনপ্রতিনিধিদের আর প্রশাসনের বিবেক নড়ে উঠুক সাধারণের জন্য। সময়ের স্রোতে হারিয়ে যাচ্ছে অনেক প্রিয় কেউ আর অনেক ঘটনা। আমরা যারা বর্তমান তারাও একদিন পেছনে ফেলে যাওয়া বছরের মতো হারিয়ে যাবো অতীতের গর্ভে। তাই আসুন সব কিছু সুন্দরের মহিমায় সাজিয়ে দিই নিজ গুণে। নতুন বছরে নতুন স্বপ্ন সবার জন্য রঙিন হোক। ভুলে যাই ফেলে আসা সব হতাশা আর ব্যর্থতা। নতুন বছর ২০১৮ এর প্রতিটি সকাল সবার জন্য সুন্দর বার্তা বয়ে আনুক। নয়া দিগন্তের অবকাশ-পরিবারের প থেকে সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা।
পূর্ব শিলুয়া, ছাগলনাইয়া, ফেনী

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫