ঢাকা, রবিবার,২২ এপ্রিল ২০১৮

দিগন্ত সাহিত্য

বিরামহীন যাত্রা

শাহাজাদা বসুনিয়া

২৯ ডিসেম্বর ২০১৭,শুক্রবার, ০০:০০


প্রিন্ট

আমি হাঁটি মানুষের ভিড়ে, ভিড়ের ভেতর ব্যস্ত রাজপথে
হাঁটি, পথ চলি সঙ্কটে, এগোনোর পথ রুদ্ধ
মানুষ হাঁটে দুর্গম পথে, সরু অতি সঙ্কীর্ণ পথেÑ
বিড়ম্বনায় পিষ্ট হয় বিবেকের পথ, বিভোরতায়
থমকে দাঁড়াই পথে যেন বাকরুদ্ধ বোবা পথচারী এক।

আমি হাঁটি পাখিদের ভিড়ে, ভিড়ের ভেতর নিশান চিহ্নবিহীন পথে
উড়ি আর উড়ি, ছুঁই নীল আকাশ, আমার নেশা হলো উড়ে চলা মহাকাশে।
ডানা মেলে উড়ি ঊর্ধ্বে-যেখানে বায়ু বাতাসের পথ অবিরত
শূন্যে ঠাঁই নেই, উড়ে চলি ঠিকানাবিহীন পথে, দূরাকাশে
বায়ু প্রবাহে পড়ে থাকে বিস্তৃত সমাধিভূমি।

আমি হাঁটি প্রাণিকূলের ভেতর, ভিড়ের ভেতর
দৌড় মারি, তাড়া খাই, আবার দৌড় দেই পথে নিরাপদে
বৈরী আবহাওয়ায় ঘুম পারি, নির্ঘুম রাত আমার

মুনিবের ইচ্ছায় বেড়ে ওঠে দেহ, কসাইয়ের ছুরির কিনারায়
মৃত্যুর ছায়াযুদ্ধে শুধু বিষাদে দেখি রক্ত কল্লোল।

আমি হাঁটি জড়ো বস্তুর ভেতর, প্রাণহীন বস্তুর আশ্রয়শিবিরে
ঘুমহীন চোখে শুয়ে থাকি বিস্তর, বোবা-কথা নেই আমার
অনন্ত নিদ্রার মতন, অনুভূতিহীন নিশ্চুপ বিবেকের হামাগুড়ি
যেখানে রাত, সেখানেই পড়ে থাকা নিসাড় দেহ আমার
অনুভূতিহীন জীবনের মূল্য খুঁজি মহাকালের অনন্ত পথচলায়।

পুনরায় আমি হাঁটি মানুষের ভেতর, আমার ভেতরটা
আঁতকে ওঠে, প্রাণির ঊর্ধ্বে মানুষ, মানুষ মারামারি করে
খুনোখুনি চলে অহরহ, ট্রাম-ট্রাম যুদ্ধ চলে, বন্দিশিবিরে
হানাহানি চলে জাত-বিজাতে, ধর্মে-কর্মে, কাজ-কর্মে
তবুও আমাদের বিবেক বিবেকের ভেতর হাঁটাহাঁটি করে মানবকল্যাণে।

আমরা মানুষ
মানুষ মানুষের জন্য
শান্ত হোক বিবেক, শান্ত হোক ধরিত্রী।

 

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫