ঢাকা, শনিবার,২০ জানুয়ারি ২০১৮

নিরাময়

শীতের বাত ব্যথা

ডা: মোহাম্মদ আলী

২৭ ডিসেম্বর ২০১৭,বুধবার, ০০:০০


প্রিন্ট

টাটকা শাকসবজি আর পিঠে-পায়েসের শীতই কি বাংলাদেশীদের প্রিয় ঋতু? কারো কাছে উত্তরটা হ্যাঁ, কারো কাছে প্রচণ্ড রকমের ‘না’। শীত বিভিন্ন কারণেই অনেকের অপ্রিয় ঋতু। কারণগুলোর মধ্যে ব্যথা বেদনা অন্যতম। আমাদের দেশের ৯ মাসই থাকে গরম, ফলে আমাদের শরীর গরমের সাথে বেশি মানানসই। আদিকাল থেকেই আমরা এভাবে অভ্যস্ত। তাই তিন মাসের শীত আমাদের শরীরের সাথে হুট করে মানিয়ে নিতে পারে না। ফলে অন্যান্য রোগের মতো শীতকালে ব্যথাতুর রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকে।
যাদের আগে থেকেই ব্যথা বিশেষ করে ঘাড়, কোমর, হাটু বা কাঁধ ব্যথা থাকে, তাদের ব্যথা শীতে তীব্রতর হয়। আবার নতুন ব্যথার রোগীও যোগ হয় এই কালে।
কী ব্যবস্থা নেয়া উচিত? : শারীরিক ব্যথার সবচেয়ে কার্যকরী চিকিৎসা হলো আইপিএম অর্থাৎ ইন্টিগ্রেটেড পেইন ম্যানেজমেন্ট। কারণ নির্ণয়পূর্বক ব্যথার ধরন অনুযায়ী চিকিৎসাই হলো আইপিএমের মূলমন্ত্র। অনেকেই ব্যথার ধরন নির্ণয় না করেই ব্যথানাশক সেবন করেন বা ফিজিওথেরাপি নিতে থাকেন। কিন্তু অনেক সময় তা হিতে বিপরীত হয়ে যায়। অনেকে দীর্ঘ দিন ব্যথার ওষুধ খেয়ে গ্যাস্ট্রিক আলসার বা কিডনি রোগ বাধিয়ে ফেলে জীবনকে আরো জটিল করে ফেলেন। তাই প্রতিটি ব্যথার রোগীকে ব্যথার কারণ জেনে চিকিৎসা নিতে হবে। যেমন ধরুন কোমর ব্যথার কারণ যদি পটস ডিজিজ বা হাড়ের যক্ষ্মা হয় তবে সেখানে ফিজিওথেরাপি সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। তবে হাড়ের ক্ষয় রোগে ফিজিওথেরাপি কাজ করতে পারে। কিন্তু এখানেও ক্ষয়ের মাত্রা, ধরন প্রভৃতি যেনই বিশেষ চিকিৎসা প্রয়োগ করতে হবে।
এ ছাড়া নিয়মিত ব্যায়াম, সঠিক খ্যাদ্যাভ্যাস, ওজন নিয়ন্ত্রণও চিকিৎসার অংশ। তাই সচেতন হয়ে চিকিৎসা নিলে যেকোনো ঋতুতেই ভালো থাকা যায়।
লেখক : চিফ কনসালট্যান্ট, হাসনা হেনা পেইন অ্যান্ড ফিজিওথেরাপি রিসার্চ সেন্টার (এইচপিআরসি), বাড়ি-৭, শায়েস্তা খাঁ এভিনিউ, সেক্টর-৪, উত্তরা, ঢাকা। মোবাইল : ০১৭ ৭৭ ৩৬ ৯৪ ১১

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫