ঢাকা, বৃহস্পতিবার,১৮ জানুয়ারি ২০১৮

ইউরোপ

পুতিন না নাভালনি : কে জিতবেন?

নয়া দিগন্ত অনলাইন

২৪ ডিসেম্বর ২০১৭,রবিবার, ১৭:২৪


প্রিন্ট
পুতিন না নাভালনি : কে জিতবেন?

পুতিন না নাভালনি : কে জিতবেন?

আগামী রুশ প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভ্লাদিমির পুতিনের প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিতে মাঠে নামতে চান বিরোধীদলীয় নেতা আলেক্সেই নাভালনি।

কিন্তু তিনি কি তা পারবেন? এটাই রাশিয়ায় এক বড় প্রশ্ন হয়ে উঠেছে।

কিন্তু এ পথে বাগড়া দিয়েছেন রুশ নির্বাচনী কর্মকর্তারা। তারা ইতিমধ্যেই রুলিং দিয়ে দিয়েছেন যে নাভালনি নির্বাচন করার অযোগ্য কারণ তিনি দুর্নীতির অভিযোগে অভিযুক্ত। তবে আলেক্সেই নাভালনির কথা হলো, এই মামলা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

মনে করা হচ্ছে রাশিয়ায় নাভালনিই হচ্ছেন একমাত্র ব্যক্তি যিনি ভ্লাদিমির পুতিনকে নির্বাচনে হারাতে পারলেও পারতে পারেন।

তিনি যাতে প্রার্থী হতে পারেন যে জন্য রাশিয়ার ২০টি শহরে মি. নাভালনির সমর্থকরা স্বাক্ষর সংগ্রহ অভিযানে নেমেছেন। তাদের দাবি নির্বাচনের জন্য নাভালনিকে নাম নিবন্ধন করতে দেয়া হোক।

বলা হচ্ছে, ৪১ বছর বয়স্ক মি. নাভালনিকে ২০টি শহরের ৫০০ লোকের মনোনয়ন পেতে হবে। এই সমর্থন পেলে তিনি নির্বাচন কমিশনের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে পারবেন - যাতে তাকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার অনুমতি দেয়া হয়।

নির্বাচনে পুটিনের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে আরেকজন প্রার্থী আছেন বটে - তিনি হলেন টিভির অনুষ্ঠান উপস্থাপিকা কসেনিয়া সোবচাক - সমাজের উচ্চ মহলে তার ঘোরাফেরা।

তবে নাভালনি সহ অনেকের কথা, ইনি আসলে ক্রেমলিনের তাঁবেদার ।
নাভালনি ২০১১-১২ সালে পুতিন-বিরোধী বিক্ষোভে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন, এ কারণে 'অননুমোদিত বিক্ষোভ আয়োজনের অপরাধের' জন্য তিনি তিন বার জেলও খেটেছেন।

মনে রাখতে হবে রাশিয়ায় কোনো কোনো অংশের যতই সমালোচনা থাকুক, ভ্লাদিমির পুতিনের পক্ষে ব্যাপক জনসমর্থন আছে, এবং এটা প্রায় নিশ্চিত যে তিনি সহজেই নির্বাচনে জিতবেন।

কিন্তু নাভালনির কথা, অবাধ-সুষ্ঠু নির্বাচন হলে তিনি পুটিনকে হারাতে পারবেন।

ভ্লাদিমির পুটিন এবার চতুর্থ মেয়াদের জন্য প্রেসিডেন্ট হবার লড়াইয়ে নামছেন। এতে সফল হলে জোসেফ স্টালিনের পর তিনিই হবে রাশিয়ায় সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকা রুশ নেতা।


রাশিয়ায় নির্বাচনে পুতিনের বিরুদ্ধে লড়বেন নাভালনি
রাশিয়ার আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়াইয়ের জন্য এলেক্সি নাভালনি রোববার তার নাম দেয়ার চেষ্টা চালাবেন। প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে নির্বাচনে চ্যালেঞ্জ জানাতেই তিনি এ চেষ্টা চালাচ্ছেন। নির্বাচনে তাকে বিরোধী দলীয় একমাত্র নেতা হিসেবে দেখা হচ্ছে। ২০১৮ সালের মার্চ মাসে দেশটির এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। খবর এএফপি’র।

খবরে বলা হয়, ৪১ বছর বয়সী এ চৌকস নেতা রাশিয়ার আগামী নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ক্ষেত্রে তার আগ্রহের কথা প্রকাশ করলেও একটি ফৌজদারি অপরাধের কারণে সরকারি কর্মকর্তারা তাকে অযোগ্য বিবেচনা করতে পারে। আর এটা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়েই করা হয়েছে।

এ মাসের গোড়ার দিকে পুতিন চতুর্থ মেয়াদে নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দেন। আর এ নির্বাচনে বিজয়ী হলে ২০২৪ সাল পর্যন্ত তিনি দেশ চালানোর সুযোগ পাবেন। এসবের মধ্যদিয়ে পুতিন একনায়ক জোসেফ স্ট্যালিনের পর দীর্ঘ সময় দায়িত্ব পালন করা রাশিয়ার নেতা হবেন।

 

 

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
সকল সংবাদ

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫