ঢাকা, শুক্রবার,২৭ এপ্রিল ২০১৮

আরো খবর

মেয়র আনিসুল হকের জন্য ডিএনসিসিতে দোয়া মাহফিল

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৩ ডিসেম্বর ২০১৭,বুধবার, ০০:৪১


প্রিন্ট

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আনিসুল হকের রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিল গতকাল গুলশানের নগরভবনে অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, আনিসুল হক নগরীর উন্নয়নে অসামান্য অবদান রেখেছেন। তার প্রতিটি কাজে ছিল আভিজাত্যের ছোঁয়া। তিনি অনেক পরিকল্পনা করে কাজ করতেন। মাত্র দুই বছরেই তিনি ডিএনসিসি এলাকার চেহারা বদলে দিয়েছেন।
ডিএনসিসির প্যানেল মেয়র মো: ওসমান গণির সভাপতিত্বে দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার সামছুল হুদা, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব আব্দুল মালেক, আনিসুল হকের ছেলে নাভিদুল হক, ডিএনসিসির প্যানেল মেয়র-২ জামাল মোস্তফা, কাউন্সিলর জাকির হোসেন বাবুল, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মেসবাউল ইসলাম, প্রধান প্রকৌশলী ব্রি. জে. সাঈদ আনোয়ারুল ইসলামসহ ডিএনসিসির কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।
খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, আনিসুল হক যেখানে বসতেন সেখানে আলো ছড়াতেন। কর্মদতা, সাহস ইত্যাদিতে উদাহরণ সৃষ্টি করে গেছেন তিনি। কিভাবে কাজটা সর্বশ্রেষ্ঠ উপায়ে করা যায় তা করতেন। অসম্ভব কাজকে খুব সাবলীলভাবে সম্ভব করেছেন। তার উদ্যোগগুলোর পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়নে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের প থেকে সার্বিক সহযোগিতা দেয়ার আশ^াস দেন মন্ত্রী।
আব্দুল মালেক বলেন, দেশের সব সিটি করপোরেশন-পৌরসভার মেয়র-কাউন্সিলরদের মধ্যে আনিসুল হক ছিলেন আলোকবর্তিকা। তার কাছাকাছি দ্বিতীয় কেউ নেই। যিনি দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন তিনি আনিসুল হকের চেয়ে অনেক দূরে। যারা বর্তমানে ডিএনসিসির দায়িত্বে আছেন; তারা আনিসুল হকের অসমাপ্ত ও নবতর কাজগুলো করবেন। এ েেত্র মন্ত্রণালয় সহযোগিতা করবে।
নাভিদুল হক বলেন, তার বাবা নগরবাসীর জন্য যেসব কাজ করেছেন তার অংশীদার সবাই। কেউ না কেউ তার বাবাকে কোনো-না-কোনোভাবে সহযোগিতা করেছেন। যে কারণে তিনি কাজগুলো করতে পেরেছেন। ডিএনসিসির সাথে আনিসুল হকের পরিবারের যোগাযোগ সারা জীবন থাকবে বলে উল্লেখ করেন নাভিদুল হক।
সভাপতির বক্তব্যে ওসমান গনি বলেন, আনিসুল হক ছিলেন সাহসী, কর্মঠ ও একজন সৎ মানুষ, যা বাংলাদেশে বড় অভাব। যতদিন তিনি প্যানেল মেয়রের দায়িত্বে থাকবেন ততদিন সততার সাথে আনিসুল হকের অসমাপ্ত কাজগুলো সম্পন্ন করার চেষ্টা করবেন। এ জন্য তিনি স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা করেন।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫