নতুন গেজেট প্রকাশের মাধ্যমে বিচার বিভাগের স্বাধীনতা হরণ করা হয়েছে : জেএসডি

নিজস্ব প্রতিবেদক

জেএসডির নেতৃবৃন্দ বলেছেন, অধঃস্তন আদালতগুলোর আচরণবিধি শাসন বিভাগের ওপর ন্যস্ত করে গেজেট প্রকাশের মাধ্যমে বিচার বিভাগের স্বাধীনতাকে হরণ করা হয়েছে। এটি গণতন্ত্র, ন্যায়বিচারের লক্ষ্যে প্রদত্ত মাসদার হোসেন মামলার রায় ও সর্বশেষ ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায়েরই শুধু পরিপন্থী নয়, সংবিধানেরও পরিপন্থী। কারণ আইন মন্ত্রণালয় বিচার বিভাগসংক্রান্ত এ ধরনের গেজেট প্রকাশ করতে পারে না। এ গেজেটের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের ন্যায়বিচার প্রাপ্তির পথে বাধা সৃষ্টি করা হয়েছে। প্রস্তাবে বলা হয়, যে সরকার ন্যায়বিচারকে ভয় পায় সে সরকারের অধীনে কোনো দিন গণতন্ত্র ও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়।
দলের কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির জরুরি সভার প্রস্তাবে এ কথা বলা হয়েছে। সভার অন্য এক প্রস্তাবে বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি ও পেঁয়াজ, চালসহ নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলা হয়, সরকারের গণবিরোধী দৃষ্টিভঙ্গির কারণেই এ ধরনের ঘটনা ঘটে চলেছে।
জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রবের সভাপতিত্বে গতকাল দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ জরুরি সভায় বক্তৃতা করেন- জেএসডি সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, এম এ গোফরান, মো: সিরাজ মিয়া, মিসেস তানিয়া রব, শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন, কামাল উদ্দিন পাটোয়ারী, সৈয়দ বেলায়েত হোসেন বেলাল, আবদুর রাজ্জাক রাজা, এস এম রানা চৌধুরী প্রমুখ।
সভায় আগামী ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে ও ১৬ ডিসেম্বর সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে জেএসডি ও যুক্তফ্রন্টের উদ্যোগে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং ১৫ ডিসেম্বর বিকেল ৩টায় জেএসডির উদ্যোগে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.