ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ
ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

‘জেরুসালেম ইস্যুতে ট্রাম্প ও হোয়াইট হাউস একঘরে হয়ে গেছে’

নয়া দিগন্ত অনলাইন

লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ বলেছেন, বায়তুল মুকাদ্দাসকে (জেরুসালেম) ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণা করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আমেরিকা ও হোয়াইট হাউসকে সারা বিশ্ব থেকে একঘরে করে ফেলেছেন।

সোমবার লেবাননের রাজধানী বৈরুতের দাহিয়েহ এলাকা থেকে জনগণের উদ্দেশে দেয়া ভাষণে হাসান নাসরুল্লাহ লেবাননের রাজধানী বৈরুতসহ বিশ্বজুড়ে ব্যাপক বিক্ষোভ সমাবেশের কথা উল্লেখ করে এসব বিক্ষোভে অংশ নেয়ার জন্য লোকজনকে ধন্যবাদ জানান। পাশাপাশি যেসব দেশ ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন তাদের ভূমিকারও প্রশংসা করেন।

নাসরুল্লাহ বলেন, বায়তুল মুকাদ্দাস ইস্যুতে ট্রাম্প যে অবস্থান নিয়েছেন তার পুরোটাই নেতিবাচক। তিনি যা আশা করেছিলেন তার বিপরীত প্রতিক্রিয়া এসেছে এশিয়া, ইউরোপ ও আফ্রিকা থেকে। তিনি ট্রাম্পের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সাইবার জগত ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমসহ সব জায়গায় অব্যাহত রাখা আহ্বান জানান।

ইসরাইল সন্ত্রাসী রাষ্ট্র; শিশু হত্যাকারী: এরদোগান
তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান ইহুদিবাদী ইসরাইলকে সন্ত্রাসী রাষ্ট্র ও শিশু হত্যাকারী বলে অভিহিত করেছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ফিলিস্তিনের পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাস শহরকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার পর এরদোগান এসব কথা বললেন।

তুরস্কের মধ্যাঞ্চলীয় সিভাস প্রদেশে ক্ষমতাসীন দল জাস্টিস অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট পার্টির সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, ‘ইসরাইল নির্বিচারে ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের ওপর শক্তি প্রয়োগ করেছে। ইসরাইল হচ্ছে একটি নিপীড়ক ও দখলদার সরকার।’

শনিবার এরদোগান বলেছিলেন, বায়তুল মুকাদ্দাস শহরকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার যে ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট তা আন্তর্জাতিক আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। তার একদিন পর এরদোগান রোববার এসব কথা বললেন।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘ইসরাইল হচ্ছে একটি দখলদার রাষ্ট্র; তাদের পুলিশ ফিলিস্তিনের শিশু-কিশোরদেরকে গুলি করে। তারা গাজা উপত্যকার ওপর এফ-১৬ বিমান নিয়ে হামলা চালায়। বায়তুল মুকাদ্দাস ইস্যুতে এরইমধ্যে তারা ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলা চালিয়েছে।’

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.