ঢাকা, মঙ্গলবার,১২ ডিসেম্বর ২০১৭

শেষের পাতা

রাজশাহীতে জামায়াতের ১২ নারী কর্মী জেলহাজতে

রাজশাহী ব্যুরো

০৮ ডিসেম্বর ২০১৭,শুক্রবার, ০০:০০


প্রিন্ট

রাজশাহীতে জামায়াতে ইসলামীর ১২ নারী কর্মীকে বিশেষ ক্ষমতা আইনে গ্রেফতার দেখিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এর আগে গত বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে নগরীর মতিহার থানার বেলঘরিয়া এলাকার মীর হোসেনের বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়।
যাদের জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে তারা হলেনÑ রাজশাহীর কাঁটাখালী পৌরসভার সাবেক মেয়র ও জামায়াত নেতা অধ্যাপক মাজেদুর রহমানের স্ত্রী মোস্তারী বেগম, বেলঘরিয়া গ্রামের মীর হোসেনের স্ত্রী দিনা বেগম, হাসেনুর রহমানের স্ত্রী রাশিদা বেগম, মামুনের স্ত্রী মুন্নী বেগম, মৃত আব্দুস সালামের স্ত্রী মারুফা বেগম, শাহজাহানের স্ত্রী নফুরা বেগম, রুমানের স্ত্রী সুমী বেগম, রুস্তম আলীর স্ত্রী আনজুরা বেগম, বুলবুলের স্ত্রী সুমী বেগম, হাবিবুরের স্ত্রী মুর্শিদা বেগম, মোস্তাকিনের স্ত্রী আয়েশা বেগম ও হাবিবুরের স্ত্রী হাফিজা বেগম।
এ দিকে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর রাজশাহী মহানগর নায়েবে আমির অ্যাডভোকেট আবু মুহাম্মাদ সেলিম গতকাল গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে গত বুধবার রাজশাহীর কাঁটাখালীর বেলঘড়িয়ায় সিরাতের আলোচনা সভা থেকে কাঁটাখালী পৌরসভার সাবেক মেয়র অধ্যাপক মাজিদুর রহমানের স্ত্রী মুস্তারী বেগমসহ পর্দানশীল ১২ জন মহিলাকে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে তাদের মুক্তি দাবি করেছেন।
তিনি বলেন, বিনা কারণে কোনো মামলা ছাড়াই সিরাতের আলোচনা থেকে পর্দানশীল মহিলাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি সরকারের কঠোর সমালোচনা করে বলেন, এই সরকার দেশে ইসলামকে সহ্য করতে পারছে না। ১৯৭৫ সালে তারা বহুদলীয় গণতন্ত্রের পরিবর্তে ক্ষমতা পাকাপোক্ত করতে বিরোধীদলের মতামতকে উপেক্ষা করে জাতীয় সংসদে মাত্র ১১ মিনিটে একদলীয় বাকশাল কায়েম করেছিল। ঠিক একই পথ ধরে মাত্র পাঁচ মিনিটে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিল করেছে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫