আবদুস সোবাহান লিটন
আবদুস সোবাহান লিটন
প্রতিবাদে বার্ষিক পরীক্ষা বর্জন

বরগুনায় প্রধান শিক্ষককে পেটানো নেতাকে যুবলীগ থেকে বহিষ্কার

বরগুনা সংবাদদাতা

বরগুনার আমতলী খেকুয়ানী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এসএম মহিউদ্দিন স্বপনকে পেটানো বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সোবাহান লিটনকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

জেলা যুবলীগ সভাপতি অ্যাড. কামরুল আহসান মহারাজ তাকে বহিষ্কার করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে এ ঘটনার বিচারের দাবীতে আমতলী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতি আমতলী পৌর শহরে বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন ও বার্ষিক পরীক্ষা বর্জন কর্মসূচি পালন করেছে।

জানা গেছে, আমতলীর খেকুয়ানী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক ও অফিস সহকারী নিয়োগের জন্য প্রধান শিক্ষক এসএম মহিউদ্দিন স্বপন বিধি মোতাবেক ৩০ নভেম্বর একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেন। এ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিটি বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সোবাহান লিটনের মনোপুত হয়নি। এতে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে পত্রিকার বিজ্ঞপ্তি গোপন রেখে তার পছন্দের প্রার্থী নিয়োগ দেয়ার জন্য প্রধান শিক্ষককে চাপ দেন।

এতে প্রধান শিক্ষক রাজি না হওয়ায় শনিবার সন্ধ্যায় সভাপতি আবদুস সোবাহান লিটন, ভাই সোহাগ, সান্টু, তার স্ত্রীর বড় ভাই শিমন শরীফ ও সহযোগী সোহরাব হোসেন প্রধান শিক্ষককে পিটিয়ে আহত করেন।

এ ঘটনায় শিক্ষকদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। রোববার শিক্ষকরা এ ঘটনার বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন, স্মারকলিপি পেশ ও উপজেলার সকল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের চলমান বার্ষিক পরীক্ষা বর্জন করেন।

অপরদিকে এ ঘটনায় দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হওয়ায় রোববার রাতে বরগুনা জেলা আওয়ামী যুবলীগ আবদুস সোবাহান লিটনকে উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পদ থেকে বহিষ্কার করেন।

এবিষয়ে বরগুনা জেলা যুবলীগ সভাপতি অ্যাড. কামরুল আহসান মহারাজ বলেন, সংগঠন পরিপন্থী ও উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করায় দল থেকে আবদুস সোবাহান লিটনকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.