ঢাকা, রবিবার,১৭ ডিসেম্বর ২০১৭

সাতরঙ

ঘরের সৌন্দর্যে গাছ : অন্দর সজ্জা

শওকত আলী রতন

০৫ ডিসেম্বর ২০১৭,মঙ্গলবার, ০০:০০


প্রিন্ট

ঘরের নান্দনিকতা বাড়াতে ঘরের মেঝে, সিঁড়ি, বারান্দায় এমনকি শোবার ঘরে গাছ রাখতে পারেন। ঘরের ভেতরে রাখার উপযোগী বিভিন্ন ধরনের গাছ পাওয়া যায় বিভিন্ন জায়গায়। পর্যাপ্ত আলো-বাতাস ছাড়া যে প্রকৃতির গাছ দীর্ঘ দিন বেঁচে থাকতে পারে এ ধরনের গাছই বেছে নিচ্ছেন অধিকাংশ শৌখিন মানুষজন। সঠিক স্থানে এসব গাছ রাখা গেলে ঘরের সৌন্দর্য বেড়ে যায় সহজেই। লতাজাতীয় গাছ অর্কিড ও কাঁটাযুক্ত ক্যাকটাস গাছই ঘরে রাখার উপযোগী। পর্যাপ্ত আলো-বাতাস ছাড়া এ জাতীয় গাছ অনেক দিন বেঁচে থাকতে পারে। বাড়ির শোভা বাড়াতে ক্যাকটাসের ফুল ফোটানোর জন্য এবং যথাযথ বৃদ্ধির জন্য এজাতীয় উদ্ভিদের পরিচর্যারও প্রয়োজন রয়েছে। এতে করে বাড়ি বা সিঁড়ির সৌন্দর্য বাড়বে অনেকাংশে। এমনকি আপনার বাড়ির প্রধান ফটক বা বাগানের চার দিকে লাগাতে পারেন এজাতীয় উদ্ভিদ। তবে কম আর্দ্রতায় এ জাতীয় গাছ ভালো থাকে। অর্কিড ও ক্যাকটাস সাধারণত আলো বাতাসযুক্ত শুষ্ক আবহাওয়ার মধ্যে রাখতে হয়। ঘরের মধ্যে ক্যাকটাস রাখলে অবশ্যই আলো-বাতাসযুক্ত স্থানে রাখতে হবে এবং মাঝে মধ্যে গাছ রোদে দিতে হবে। নতুন টবে অর্কিড ক্যাকটাস লাগালে সাথে সাথে পানি দেয়া যাবে না। এক থেকে দুই সপ্তাহ পর পানি দিতে হবে।
গাছের যতœ : গরমকালে সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন এবং শীতকালে এক থেকে দুই দিন অল্প পানি দিতে হবে। পানির পরিমাণ বেশি হলে ক্যাকটাস গাছ পচে যায়। টবের গোড়ায় পানি জমে থাকলে গাছের গোড়া পচে যেতে পারে। তাই লক্ষ রাখতে হবে কোনোভাবেই যাতে গোড়ায় পানি জমে না থাকে।
দরদাম : ক্যাকটাস ও অর্কিড জাতীয় গাছ সাধারণত টবসহ বিক্রি হয়ে থাকে। গাছের ধরনের ওপর দাম নির্ভর করে। তার পরও ৫০ টাকা থেকে শুরু করে ১০ হাজার টাকার মধ্যে পাওয়া যায়।
যেখানে পাবেন : এ ধরনের গাছ রাজধানীর দোয়েল চত্বরে সবচেয়ে বেশি পাওয়া যায়। এ ছাড়া নিউমার্কেট, ঢাকা কলেজের সামনে, ধানমন্ডি ৬ নম্বর সড়কের ফুটপাথ, কলাবাগান, আসাদগেটও মিন্টু রোড়ে রাস্তার দুই পাশে পাওয়া যায়।

 

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫