ঢাকা, শনিবার,১৬ ডিসেম্বর ২০১৭

ফুটবল

লা লিগায় প্রথম পরাজয়ের স্বাদ পেল ভ্যালেন্সিয়া

নয়া দিগন্ত অনলাইন

০৪ ডিসেম্বর ২০১৭,সোমবার, ১৫:২৫


প্রিন্ট

লীগ টেবিলের শীর্ষে থাকা বার্সেলোনার থেকে পয়েন্টের ব্যবধান কমানোর সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেছে ভ্যালেন্সিয়া। রোববার গেতাফের বিপক্ষে ০-১ গোলে পরাজিত হয়ে পয়েন্ট হারিয়েছে লা লিগায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা দলটি। এটি ছিল মৌসুমে ভ্যালেন্সিয়ার প্রথম পরাজয়। ৬৬ মিনিটে মারকেল বেরগারার ডিফ্লেকটেড শটে গেতাফের জয় নিশ্চিত হয়।

ম্যাচের ২৫ মিনিটে গেতাফের উরুগুয়ের মিডফিল্ডার মাওরো আরামবারি লাল কার্ড পেয়ে মাঠের বাইরে চলে যাওয়ায় বাকি সময়টা ১০জনকে নিয়ে খেলতে বাধ্য হয়েছে স্বাগতিকরা। সফরকারী ভ্যালেন্সিয়ার জন্য সবচেয়ে হতাশার বিষয় হলো এই সুযোগটিও বাকি ৬৫ মিনিট তারা কাজে লাগাতে পারেনি। যদিও পিএসজি থেকে ধারে খেলতে আসা ২১ বছর বয়সী তারকা পর্তুগীজ মিডফিল্ডার গনসালো গুয়েডেস কাল ইনজুরির কারনে ভ্যালেন্সিয়ার সাইড লাইনে ছিলেন। যা দলের ওপর প্রভার ফেলেছে বলেই মনে করেন দলীয় অধিনায়ক ডানি পারেয়ো। স্থানীয় গণমাধ্যমে ম্যাচ শেষে পারেয়ো গেতাফের মাঠের সমালোচানা করে বলেছেন, ‘গেতাফেকে অভিনন্দন। আজ তারা জিতেছে। কিন্তু আমি মনে করি না এই ফলাফলটা আমাদের প্রাপ্য ছিল, কিন্তু এটাই ফুটবল। পরাজয়ের কোন কৈফিয়ত আমি দিতে চাইনা, তবে একটি কথাই বলবো বিশ্বের অন্যতম সেরা লীগে খেলতে এসে এই ধরনের মাঠে খেলাটা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না।’

সেল্টা ভিগোর সাথে ন্যু ক্যাম্পে ২-২ গোলে ড্র করে শনিবার পয়েন্ট হারিয়েছিল বার্সেলোনা। আর সে কারণেই ভ্যালেন্সিয়ার সামনে সুযোগ এসেছিল ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকা কাতালানদের সাথে পয়েন্টের ব্যবধান কমানোর। গত দুই মৌসুমেই ১২তম স্থানে থেকে মৌসুম শেষ করা ভ্যালেন্সিয়া এবার প্রথম থেকেই দাপটের সাথে নিজেদের এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। বার্সার থেকে দুই পয়েন্ট পিছনে থাকার সুযোগ হারিয়ে ভ্যালেন্সিয়া এখন তৃতীয় স্থানে থাকা এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের থেকে মাত্র এক পয়েন্ট এগিয়ে দ্বিতীয় স্থান ধরে রেখেছে। চতুর্থ স্থানে থাকা বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদের সংগ্রহ ২৮ পয়েন্ট। শনিবার তারা এ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের সাথে গোলশুন্য ড্র করে পয়েন্ট হারিয়েছে।

ম্যাচের ২৫ মিনিটে মাত্র চার মিনিটের ব্যবধানে দুটি বিপদজনক ফাউল কওে আরামবারি মাঠ ত্যাগ করলে ভ্যালেন্সিয়া মানসিক ভাবে অনেকটাই এগিয়ে যায়। কিন্তু পুরো প্রথমার্ধই তার কোন সুবিধা আদায় করতে পারেনি সফরকারীরা। বিরতির ঠিক আগে পারেয়োর ফ্রি-কিক গেতাফে গোলরক্ষক ভিসেন্টে গুইয়াটা দারুন দক্ষতায় রক্ষা করেন।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই এ্যাঞ্জেল রডরিগুয়েজের জোড়ালো শট ভ্যালেন্সিয়ার গোলরক্ষক নেটোকে পরাস্ত করলেও জালের ঠিকানা খুঁজে পায়নি। তবে ৬৬ মিনিটে ডেডলক ভাঙ্গেন বেরগারা। ২৫ গজ দুর থেকে তার শক্তিশালী শট আর্সেনালের সাবেক ডিফেন্ডার গ্যাব্রিয়েল পলিস্টারের স্পর্শ লেগে নেটোকে পরাস্ত করলে গেতাফে এগিয়ে যায়। পিছিয়ে পড়ার পরেও ভ্যালেন্সিয়া ম্যাচের শেষের দিকে দুইবার গোলের দারুন সুযোগ নষ্ট করে। আবারো পারেয়োর ফ্রি-কিক গুইয়াটা আটকে দেবার পরে স্টপেজ টাইমে কার্লেস সোলারের ভলি রুখে দেন ভ্যালেন্সিয়ার সাবেক এই গোলরক্ষক।

এর আগে দিনের অপর ম্যাচে লেগানেস ৩-১ গোলে ভিয়ারেলকে, এইবার একই ব্যবধানে এস্পানেয়লকে ও লাস পালমাস ১-০ গোলে রিয়াল বেটিসকে পরাজিত করেছে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫