অপহরণের নাটক সাজিয়ে নিজেই ধরা
অপহরণের নাটক সাজিয়ে নিজেই ধরা

অপহরণের নাটক সাজিয়ে নিজেই ধরা

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে রিটন মিয়া (৩৫) নামে এক ব্যক্তি অন্য একজনকে ফাঁসাতে অপহরনের নাটক সাজিয়ে নিজেই পুলিশের হাতে ধরা পড়েছে। শনিবার রাতে পুলিশ মোবাইল ট্র্যাকিং করে গফরগাঁও রেলওয়ে স্টেশন থেকে রিটন মিয়াকে আটক করে।

জানা গেছে, নেত্রকোনার দেদুকোন গ্রামের মোহাম্মদ সুরুজ মিয়ার ছেলে রিটন মিয়া গফরগাঁও ইসলামিয়া সরকারি হাইস্কুলের কর্মচারি হুমায়ুন কবিরের মাছের খামারে কাজ করত। গত ২৪ নভেম্বর রিটন মিয়া তার স্ত্রী নায়িমা আক্তারকে মোবাইল ফোনে জানায়, খামার মালিক হুমায়ুন কবিরের লোকজন আমাকে অপহরণ করেছে। অপহরণকারীরা ১ লাখ ৮০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করছে।
এ ব্যাপারে তার স্ত্রী নায়িমা আক্তার ২৫ নভেম্বর গফরগাঁও থানায় একটি অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেন। পরে গফরগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ খান রিটন মিয়ার ব্যবহৃত মোবাইল ট্র্যাকিং করে শনিবার রাতে গফরগাঁও রেলওয়ে স্টেশন থেকে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। গফরগাঁও ইসলামিয়া সরকারি হাইস্কুলের কর্মচারি হুমায়ুন কবির বলেন, রিটন আমাকে হয়রানি করার জন্য অপহরণ নাটক সাজিয়েছেন।

গফরগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ খান বলেন, তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় রিটনের অবস্থান চিহ্নিত করে তাকে উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে- রিটন অত্যন্ত ধুরন্দর প্রকৃতির লোক। প্রকৃত সত্য উদ্ঘাটনের জন্য তাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

তবে রিটন মিয়ার কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.