ঢাকা, বৃহস্পতিবার,১৪ ডিসেম্বর ২০১৭

নগর মহানগর

দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি শপথ পড়াতে পারবেন : আইনমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

২৪ নভেম্বর ২০১৭,শুক্রবার, ০০:১৪


প্রিন্ট

প্রধান বিচারপতি হিসেবে শপথ না নিলেও দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মো: আবদুল ওয়াহহাব মিঞা অন্য বিচারপতিদের শপথ পড়াতে পারবেন বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তিনি বলেন, অস্থায়ীভাবে তিনি (দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি) প্রধান বিচারপতির দায়িত্বগুলো পালন করতে পারবেন।
গতকাল বিচার প্রশিণ ইনস্টিটিউটে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ও সমপর্যায়ের বিচারকদের প্রশিণ কোর্সের উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।
আইনমন্ত্রী বলেন, শূন্য হওয়া প্রধান বিচারপতির পদ শিগগিরই পূরণ করা হবে। প্রধান বিচারপতি নিয়োগ দেয়ার এখতিয়ার শুধু রাষ্ট্রপতির। রাষ্ট্রপতি নিশ্চয় এ গুরুত্বপূর্ণ পদটি বেশি দিন খালি রাখবেন না।
প্রধান বিচারপতি নিয়োগ দেয়ার আগে অন্যান্য বিচারপতি নিয়োগ দেয়া যাবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে আনিসুল হক বলেন, আমাদের সংবিধানের ৯৭ অনুচ্ছেদে বলা আছে অস্থায়ী প্রধান বিচারপতি প্রধান বিচারপতির অনুরূপ ক্ষমতা পালন করতে পারবেন। অনুরূপ মানে হচ্ছে প্রধান বিচারপতি যা যা করতে পারতেন তিনি (অস্থায়ী প্রধান বিচারপতি) সেটিই করবেন।
তিনি বলেন, ‘একটু পেছনে তাকালে দেখা যাবে, ১৯৯০ সালের ডিসেম্বরে প্রধান বিচারপতি শাহাবুদ্দিন আহমদ কেয়ারটেকার সরকারের চিফ অ্যাডভাইজার হয়েছিলেন। পরে তিনি রাষ্ট্রপতিও হয়েছিলেন। তখন একজন অ্যাক্টিং চিফ জাস্টিস ছিলেন। তিনি অ্যাপয়েনমেন্টও দিয়েছেন। শপথও পড়িয়েছেন। এটা যে নজির নেই তা না। নজির আছে। অনুরূপ কথার উপরে জোর দিতে হবে।’
আইনমন্ত্রী আরো বলেন, ‘যিনি এখন অস্থায়ী প্রধান বিচারপতি তিনি কিন্তু একটা শপথ নিয়েছেন, আপিল বিভাগের বিচারপতি হিসেবে। অনুরূপ মানে হচ্ছে চিফ জাস্টিসের সব মতা তিনি পালন করতে পারবেন। সেখানে কিন্তু কোনো বিভাজন করে দেয়া হয়নি। তিনি কি করতে পারবেন কি পারবেন না।’
প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব যিনি পালন করছেন তিনি শপথ পড়াতে পারবেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, এটি নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি করার দরকার নেই। আমার মনে হয় সব কিছু দেখা হচ্ছে।
অন্য এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, অধঃস্তন আদালতের বিচারকদের শৃঙ্খলা বিধির খসড়া সুপ্রিম কোর্টে পাঠানো হয়েছে। সুপ্রিম কোর্ট তা দেখছেন। এটি সুপ্রিম কোর্ট থেকে আসা মাত্রই রাষ্ট্রপতির দফতরে পাঠানো হবে।
ষোড়শ সংশোধনীর রিভিউয়ের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, রিভিউ পিটিশন শোনার জন্য আইনে যা যা নিয়ম আছে তার সবগুলো পালন করা হবে। রিভিউ পিটিশন কবে নাগাদ দাখিল করা হবে এমন প্রশ্নের জবাবে বলেন, এটি অ্যাটর্নি জেনারেল জানেন।

 

 

অন্যান্য সংবাদ

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫