ইউনিভার্সিটি অব সাউথ এশিয়ার সমাবর্তন-২০১৭ অনুষ্ঠিত

গত ১৮ সেপ্টেম্বর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কনফারেন্স সেন্টারে ইউনিভার্সিটি অব সাউথ এশিয়ার কনভোকেশন ২০১৭ অনুষ্ঠিত হয়। ২০০৩ সালে ঢাকার বনানী এলাকায় চারটি ফ্যাকাল্টি নিয়ে যাত্রা শুরু হয় এই বিশ্ববিদ্যালয়ের। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের সদ্য সনদপ্রাপ্ত গ্র্যাজুয়েটদের সবকিছুর আগে নিজেদের একজন উদ্ভাবক ও দেশ গড়ার কারিগর হিসেবে গড়ে ওঠার পরামর্শ দেন। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. এম এ মুহিত ‘বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে আত্ম অন্বেষণের জায়গা, শুধু ডিগ্রি দেয়া ও নেয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় নয়’ মন্তব্য করে বলেন, ইউনিভার্সিটি অব সাউথ এশিয়ার প্রধান উদ্দেশ্য ধর্ম, বর্ণ, জাতি কিংবা শারীরিক, মানসিক প্রতিবন্ধিতা নির্বিশেষে একটি অংশগ্রহণমূলক ও সহনশীল সমাজ তৈরিতে কাজ করার জন্য ছাত্রছাত্রীদের গড়ে তোলা। অনুষ্ঠানে কনভোকেশন স্পিকার হিসেবে বক্তব্য রাখেন নাগরিক টিভির চিফ অপারেটিং অফিসার ড. আব্দুন নূর তুষার। তিনি তার ভাষণে শিক্ষা কারিকুলামে স্বেচ্ছাসেবা-কার্যক্রম অন্তর্ভুক্ত করার গুরুত্ব তুলে ধরে বলেন, নেয়ার পাশাপাশি দেয়াতেও যে সাফল্য আছে, আনন্দ আছে, তা আমাদের তরুণ প্রজন্ম শিখতে না পারার ব্যর্থতার জন্য আগামী প্রজন্ম একদিন আমাদের দুষবে। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন লিপিং বাউন্ডারির প্রতিষ্ঠাতা শেগুফে হোসেন। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এম এ ওয়াদুদ মণ্ডল ও প্রোভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এম দিলদার হোসেনসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের ঊর্র্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ও অন্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। সমাবর্তনে চারটি ফ্যাকাল্টির ১২২১ জন গ্র্যাজুয়েটকে সনদ দেয়া হয়।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.