বন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত

নিম্নচাপটির বেগ বাড়ছে ঘণ্টায় ৫০ কিলোমিটার

নিজস্ব প্রতিবেদক

বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত নিম্নচাপটি সামান্য একটু অগ্রসর হয়েছে উত্তর ও উত্তরপূর্ব দিকে এবং এর গতিবেগ ঘণ্টায় বাড়ছে সর্বোচ্চ ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত। তবে ২৪ ঘণ্টায় এটি মাত্র ১৫ থেকে ২০ কিলোমিটার অবস্থান পরিবর্তন করেছে। কিন্তু আগের মতোই শক্তি নিয়ে অবস্থান করছে।

আহাওয়া অফিস বলছে, এটি আরো জোরদার হতে পারে। আবহাওয়া অফিস নিম্নচাপটিকে আরো জোরদার হওয়ার কথা বললেও শেষ পর্যন্ত তা ঝড়ে রূপ নাও নিতে পারে। সামনের দুই থেকে তিন দিনের মধ্যেই তা দুর্বল হয়ে যেতে পারে।
আবহাওয়া অফিস দেশের চার সমুদ্র বন্দরের জন্য ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত জারি করেছে।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন পশ্চিমমধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত নিম্নচাপটি কার্যত: স্থির থেকে একই এলাকায় অবস্থান করছে।

নিম্নচাপটি আজ বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৯৭০ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৯৫০ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৭৮০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ৮১৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছিল।

আজ সকালে নিম্নচাপটি চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ৯৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৯৬৫ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৭৯৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ৮৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছিল। সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ১৫ থেকে ২০ কিলোমিটার অগ্রসর হয়েছে মাত্র।

এটি আরো ঘনীভূত হয়ে উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হতে পারে।

এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালার সৃষ্টি অব্যাহত রয়েছে। নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৪৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। নিম্নচাপটির কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর উত্তাল রয়েছে। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সব মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। সেই সাথে তাদেরকে গভীর সাগরে বিচরণ না করতে বলা হয়েছে।

নিম্নচাপের প্রভাবে আজ শুক্রবার রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং ময়মনসিংহ, রংপুর ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারী ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারী ধরনের ভারী বর্ষণ হতে পারে। সারাদেশে রাত এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আগামী ৪৮ ঘণ্টা পর হ্রাস পেতে পারে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা। নিম্নচাপের প্রভাবে দেশের বিভিন্ন স্থানে কিছুটা বৃষ্টি হয়েছে। সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে রাঙ্গামাটিতে ১৮ মিলিমিটার।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.