ঢাকা, মঙ্গলবার,১২ ডিসেম্বর ২০১৭

খুলনা

যশোরে প্রাডো গাড়িতে সিংহ-বাঘ শাবক : আটক দুই আসামি রিমান্ডে

যশোর অফিস

১৬ নভেম্বর ২০১৭,বৃহস্পতিবার, ১৬:৩৯ | আপডেট: ১৬ নভেম্বর ২০১৭,বৃহস্পতিবার, ১৬:৪৯


প্রিন্ট
উদ্ধার হওয়া সিংহ ও চিতার শাবক। ইনসেটে আটক দুই যুবক।

উদ্ধার হওয়া সিংহ ও চিতার শাবক। ইনসেটে আটক দুই যুবক।

যশোরে প্রাডো গাড়ি থেকে উদ্ধার হওয়া চারটি সিংহ ও চিতা বাঘের শাবক কোথা থেকে এলো, সেই রহস্য এখনো উন্মোচন হয়নি।

কর্মকর্তারা বলছেন, বাংলাদেশে কখনো কোনো সিংহের শাবক জন্ম হয়নি। যতগুলো সিংহ আছে, সেগুলো বাইরের দেশ থেকে আমদানি করা।

সিংহ ও চিতার শাবক কোথা থেকে এলো সেই রহস্য উন্মোচন করতে আটক পাচারকারী চক্রের দুই সদস্যকে পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে যশোরের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শাজাহান আলীর আদালতে ওই দু’জনকে হাজির করা হয়। আদালতে শুনানি শেষে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা যশোরের চাঁচড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই সৈয়দ বায়োজিদ বলেন, আটক দুই আসামি বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার বশিকুড়া গ্রামের আহাদ আলী সরদারের ছেলে কামরুজ্জামান বাবু (৩১) ও নরসিংদীর পলাশ উপজেলার বককুলনগর গ্রমের মান্নান ভূইয়ার ছেলে রানা মিয়া (২৮)।

মামলায় ওই দু’জনের নাম উল্লেখসহ আরো দু’জন অজ্ঞাত আসামি রয়েছেন।

এ ব্যাপারে খুলনা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মদিনুর হাসান বলেন, সম্প্রতি বাংলাদেশে কোনো সিংহ কিংবা চিতাবাঘের শাবকের জন্ম হয়নি। ফলে শাবকগুলো কোথা থেকে এলো এ নিয়ে পুলিশ তদন্ত করছে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত ১৩ নভেম্বর যশোরের চাঁচড়া মোড়ে চেকপোস্ট বসিয়ে কালো রঙের একটি প্রাডো গাড়ি (ঢাকা-মোট্রো-ঘ-১৩-২৭৯০) থামিয়ে তল্লাশি করা হয়। গাড়িতে কাঠের বাক্সের মধ্যে দুটি সিংহ ও দুটি চিতাবাঘের শাবক পাওয়া যায়। এসময় দু’জনকে আটক করা হয়। পরে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে কোতায়ালি থানায় মামলা করা হয়।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫