ঢাকা, রবিবার,১৯ নভেম্বর ২০১৭

মিউজিক

সুরের টানে দেশে ফিরেছি : সায়েরা রেজা

সাকিবুল হাসান

১২ নভেম্বর ২০১৭,রবিবার, ২০:৩৩


প্রিন্ট

সায়েরা রেজা বাংলাদেশের সঙ্গীতাঙ্গনে এক অতি পরিচিত মুখ।‘সুখের অমিল’,‘এক নিমিষে’,‘আরবান ফোক্স’,‘নিদাগীরে’ শিরোনামের চারটি একক, একাধিক মিক্সড ও প্লেব্যাকের মাধ্যমে তিনি শ্রোতাদের হৃদয়ে ইতোমধ্যে একটি ভালোবাসার আসন গড়ে নিয়েছেন। স্বামীর পেশার কারণে তিনি বাংলাদেশের বাইরে অবস্থান করেন। কয়েকটি স্টেজ শো, টিভি প্রোগ্রাম ও নতুন অ্যালবামের কাজের জন্য সম্প্রতি সায়েরা রেজা বাংলাদেশে এসেছেন। তার সাথে কথা বলেছেন সাকিবুল হাসান

দেশে কোথায় কোথায় প্রোগ্রাম রয়েছে?
সপ্তাহ খানেক দেশে থাকবো। খুব বেশি প্রোগ্রামে তাই এটেন্ড করতে পারব না। বাংলা ভিশনের নিয়মিত আয়োজন ‘মিউজিক ক্লাবে’ গাইব। তা ছাড়া কয়েকটি স্টেজ প্রোগ্রাম ও ভিআইপি শোতেও গাইব।

বিদেশে থাকাকালীন দেশকে কিভাবে অনুভব করেন?
আসলে শিল্পীর কোনো দেশ নেই, ভৌগোলিক সীমারেখা নেই। আমি যেখানেই থাকি না কেন সব সময় বাংলাদেশকে, দেশের মা মাটির সুরকে, লাল সবুজের চেতনাকে বুকে ধারণ করি। বিদেশের মাটিতেও আমি সব সময় এ দেশের হাজার বছরের ঐতিহ্যে লালিত সাধক শিল্পীদের গান পরিবেশন করি।

ওখানে এ ধরনের গানের রেসপন্স কেমন?
রেসপন্স তৈরির দায়িত্বটুকু একজন শিল্পীর। আমরা যা গাইব শ্রোতারা তাই শুনবে। একজন বাঙালি হিসেবে বিদেশের মাটিতে নিজের দেশের ঐতিহ্য তুলে ধরা বাংলাদেশের একজন নাগরিক ও বাংলা ভাষাভাষীর মানুষ হিসেবে আমাদের নৈতিক দায়িত্বের মধ্যে বর্তায়। আমি সায়েরা রেজা সে ক্ষেত্রে শতভাগ সফল, যুক্তরাষ্ট্রের মতো দেশে আমি আমার দেশের গানকে সম্মানের সাথে উপস্থাপন করি।

শ্রোতাদের উদ্দেশে আপনার বক্তব্য
শ্রোতাদের উদ্দেশে বলব, তাদের ভালোবাসার কারণেই আমি আজ সায়েরা রেজা। ভালোবাসার ঋণ কখনো শোধ করা যায় না। সব সময় ভালো গান গেয়ে তাদের ভালোবাসার ঋণকে আরো বাড়াতে চাই, সব সময় তাদের দোয়া ও সমর্থন চাই।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫