ঢাকা, শনিবার,১৮ নভেম্বর ২০১৭

বরিশাল

তরুণীকে ধর্ষণ শেষে হত্যা : পাথরঘাটা ছাত্রলীগের ৪ নেতাসহ গ্রেফতার ৫

  পাথরঘাটা (বরগুনা) সংবাদদাতা

১৩ নভেম্বর ২০১৭,সোমবার, ১১:০১


প্রিন্ট

বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায় তরুণীকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে পাথরঘাটা কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
গ্রেফতারকৃতরা হলো পাথরঘাটা কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি রুহি আনান দানিয়াল (২২), সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন ছোট্ট (২১), সাংগঠনিক সম্পাদক মাহিদুল ইসলাম রায়হান (১৯) উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক মো. মাহমুদ (১৮) ও কলেজের নৈশ প্রহরী মো. জাহাঙ্গীর হোসেন (৪৪)।
বরগুনার পুলিশ সুপার বিজয় বসাক সাংবাদিকদের জানান, চলতি বছরের ১০ আগস্ট পাথরঘাটা কলেজের পশ্চিম পাশের পুকুর থেকে অজ্ঞাত এক তরুণীর গলিত লাশ উদ্ধার করা হয় পুলিশ। ঘটনার পর থেকে এ হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটনের জন্য দীর্ঘ সময় ধরে তদন্তে লেগে থাকে পুলিশ। পরে তথ্য পেয়ে গত শুক্রবার পাথরঘাটা কলেজের নৈশ প্রহরী মো. জাহাঙ্গীর হোসেনকে গভীর রাতে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে যায় ডিবি পুলিশ। জাহাঙ্গীরের দেয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী গত শনিবার রাতে ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদ ও রায়হানকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।
পুলিশ সুপার বিজয় বসাক আরো বলেন, এখনও পর্যন্ত নিহত তরুণীর পরিচয় পাওয়া যায়নি। তবে রবিবার গ্রেফতারকৃত দানিয়াল এবং সাদ্দামকে এখনও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়নি। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের পর তরুনীর পরিচয় পাওয়া যাবে বলে মনে করেন তিনি। তবে মাহমুদ এবং রায়হান এ হত্যাকান্ড এবং হত্যাকান্ডের পর লাশ পুকুরে লুকানোর সাথে সম্পৃক্ত ছিলো বলে আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন বলেও পুলিশ সুপার বিজয় বসাক জানান।
সর্বশেষ রোববার দুপুর ১২টার দিকে পাথরঘাটা কলেজ চত্তর থেকে কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি রুহি আনান দানিয়াল ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন ছোট্টকে আটক করে ডিবি পুলিশ। যেকোন সময় তারে ১৬৪ ধারায় জবান বন্দি নেয়া হবে। আজ সকাল ১১টার পর বরগুনা পুলিশ সুপার বিজয় বসাক আনাষ্ঠানিক ভাবে সাংবাদিকদের সাথে সংবাদ সম্মেলন করবেন বলে জানান।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫