ছয় সিটি ও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সন্ত্রাসী হামলা হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।
ছয় সিটি ও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সন্ত্রাসী হামলা হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

নিরাপত্তা চেয়ে আইজিপির কাছে ইসির চিঠি

নিজস্ব প্রতিবেদক

উগ্রবাদী হামলার আশঙ্কায় নির্বাচন কমিশন ভবনের নিরাপত্তা জোরদার করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে সহায়তা চেয়ে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বরাবর চিঠি দিয়েছে ইসি।

ছয় সিটি ও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে এ হামলা হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

গত বৃহস্পতিবার ইসি সচিবালয়ের উপ সচিব আবদুল হালিম খান স্বাক্ষরিত চিঠি আইজিপি বরাবর পাঠানো হয়।

এতে ‘দেশের বিভিন্ন স্থানে উগ্রবাদী হামলার শঙ্কা’ রেখে নির্বাচন ভবনের নিরাপত্তা জোরদার করতে বলেছে ইসি।

চিঠিতে বলা হয়েছে, আগারগাঁওস্থ নির্বাচন ভবনে সিইসি ও নির্বাচন কমিশনারদের দপ্তর স্থাপিত। এছাড়া ইসি সচিবালয় ও নির্বাচনী প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউটও (ইটিআই) এখানে। নির্বাচন ভবনে প্রতিনিয়তই রাজনৈতিক দল, মন্ত্রী, সংসদ সদস্য, দেশী-বিদেশী গণ্যমান্য ব্যক্তিরা আসছেন। আগামীতে অনুষ্ঠিতব্য ছয় সিটি করপোরেশন নির্বাচন ও একাদশ সংসদ নির্বাচনের সংশ্লিষ্ট কার্যক্রমও শুরু হয়েছে। নির্বাচন কমিশন একটি স্পর্শকাতর ও সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান। সম্প্রতি কিছু উগ্রবাদী গোষ্ঠী বিভিন্ন স্থানে হামলার পরিকল্পনা করছে বলে গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। এ অবস্থায় নির্বাচন ভবনের বিদ্যমান নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও সিইসি, নির্বাচন কমিশনারদের নিরাপত্তা বেশি জোরদার করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দিয়েছে কমিশন। পুলিশ মহাপরিদর্শক বরাবর পাঠানো চিঠির অনুলিপি দেয়া হয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ, সচিব, ডিএমপি কমিশনার, তেজগাঁও উপ কমিশনার, ট্রাফিক নর্থ, শেরেবাংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার কাছেও। এর আগে দশম সংসদ নির্বাচনে আগে বিএনপির নির্বাচন বর্জনের মুখে ২০১৩ সালের অক্টোবরেও নির্বাচন কমিশন ভবনসহ মাঠ পর্যায়ের সব নির্বাচনী এলাকায় নিরাপত্তা নিয়েছিল ইসি। ২০১৮ সালের শেষ দিকে একাদশ সংসদ নির্বাচন হবে। ২০১৮ সালের ৩০ অক্টোবর থেকে ২০১৯ সালের ২৮ জানুয়ারির মধ্যে এ ভোট হওয়ার কথা রয়েছে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.