উসমান খানে লণ্ডভণ্ড টপ অর্ডার
উসমান খানে লণ্ডভণ্ড টপ অর্ডার

উসমান খানে লণ্ডভণ্ড টপ অর্ডার

নয়া দিগন্ত অনলাইন

উসমান খানের তাণ্ডবে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে শ্রীলঙ্কার টপ অর্ডার। ৮ রানেই তাদের ৪ উইকেটের পতন ঘটেছে। ৪টি উইকেটই নিয়েছেন উসমান খান। এটা তার দ্বিতীয় একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ। আগের ম্যাচে এই পাঠানের একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল।

সিরিজের ৫ম ও শেষ একদিনের ম্যাচে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমেছিল শ্রীলঙ্কা। আশা ছিল বড় স্কোর গড়বে। কিন্তু উসমান খানের বিধ্বংসী বোলিংয়ে তাদের সেই স্বপ্ন ভণ্ডুল হয়ে গেছে।
উল্লেখ্য, সিরিজে পাকিস্তান ৪-০-এ এগিয়ে রয়েছে। ফলে এই ম্যাচে জয়ী হলে তারা প্রথমবারের মতো ৫ ম্যাচ একদিনের সিরিজে শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইট ওয়াশ করতে পারবে।

আর শ্রীলঙ্কার জন্য এমন পরাজয় খুবই বেদনাদায়ক। আজ হারলে নিশ্চিত এক বছরে তৃতীয় হোয়াইটওয়াশ লজ্জা হজম। তাদের একদিনের ক্রিকেটে একটানা হারের সংখ্যাও বেড়ে দাঁড়াবে ১১তে।
চরম সঙ্কটের মুখে দাঁড়িয়ে আজ শারজাতে পঞ্চম ওয়ানডেতে পাকিস্তানের মোকাবেলায় মাঠে নামছে ১৯৯৬-এর চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা। দল দু’টির মধ্যকার ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচটি বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায় শুরু হবে। টানা চার ম্যাচের জয়ে প্রতিপক্ষকে হোয়াইটয়াশের সুযোগ এসেছে পাকিস্তানের সামনে। টেস্ট সিরিজে ২-০তে পরাজিত দলটিও মুখিয়ে রয়েছে ৫-০ ব্যবধানে একদিনের সিরিজের জয়োৎসবের জন্য। ম্যাচের ফেবারিটও সরফরাজ অ্যান্ড কোং। প্রতিটি ম্যাচেই অলরাউন্ড নৈপুণ্য প্রদর্শন করেছে পাকিস্তান। সাম্প্রতিক সময়ে ৫০ ওভারের ফরম্যাটে তারা দুর্দান্ত খেলছে। সরফরাজের অধীনে দেশটি জিতেছে ১৩ ম্যাচের ১১টিতেই।

চলতি বছরে দক্ষিণ আফ্রিকা ও ভারতের কাছে ওয়ানডেতে হোয়াইটওয়াশ লজ্জা ইতোমধ্যেই হজম করেছে শ্রীলঙ্কা। দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ার পরও তারা ওই দুই সিরিজে ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। হেরেছে সিরিজের পঞ্চম খেলায়।


পাকিস্তান সফরে যাবে না লংকান কোচ
শ্রীলংকা ও পাকিস্তানের মধ্যে আসন্ন তিন টি-২০ সিরিজের শেষ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে লাহোরে। তবে এ ম্যাচে দলের সঙ্গে পাকিস্তান সফরে যাবেন না শ্রীলংকা কোচ নিক পোথাস।

কেবলমাত্র পোথাস নন, লংকান দলের ফিজিও নিরমালান ধনাবলাসিংগাম এবং নিয়মিত সাত খেলোয়াড়ও শেষ টি-২০ ম্যাচটি খেলতে লাহোর সফর থেকে বিরত থাকছে।
টি-২০ সিরিজের দলে থাকতে হলে সকল খেলোয়াড়কে লাহোর সফর করতে হবে বলে আগেই শর্ত দিয়েছিল শ্রীলংকা ক্রিকেট (এসএলসি)। সব খেলোয়াড় এ শর্ত না মানায় বাধ্য হয়ে সাত নতুন মুখ নিয়ে সংক্ষিপ্ত সিরিজের দল ঘোষণা করতে বাধ্য হয় এসএলসি। সিরিজের বাকি দুই ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে আবু ধাবিতে।

লংকান দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করা দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক ব্যাটম্যান পোথাস ক্রিকবাজকে বলেন, ‘এটা আমার পারিবারের সিদ্ধান্ত। আমার পরিবার চায় না যে, আমি পাকিস্তান সফর করি। আমার কাছে আমার পরিবার আগে।’
তিনি আরো বলেন, ‘প্রত্যেকেরই নিজস্ব সিদ্ধান্ত নেয়ার স্বাধীনতা আছে। যদি কেউ কোন বিষয় পছন্দ না করে তবে তা নিয়ে কারোরই জবরদস্তি করা উচিৎ নয়। এমন সিদ্ধান্ত নেয়াটা সহজ ছিলো না। একে সম্মান করতে হবে।’

বিশ্ব একাদশের সিরিজে দক্ষিণ আফ্রিকার বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়ের অংশ নেয়ার বিষয়ে পোথাস বলেন, ‘বিশ্ব একাদশের হয়ে গত মাসে দক্ষিণ আফ্রিকার বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়ের অংশগ্রহণের বিষয়টি আমাকে পাকিস্তানের কতিপয় গণমাধ্যম স্মরণ করিয়ে দিয়েছে। এটা ছিলো তাদের সিদ্ধান্ত। তাদের সিদ্ধান্ত তো আমার সিদ্ধান্তে প্রভাব ফেলতে পারে না। মূলত বোর্ড চেয়েছিল সবাই পাকিস্তান সফর করুক। তবে আমাকে কেউ চাপ সৃষ্টি করেনি।’

আবুধাবির ম্যাচ পর্যন্ত পোথাস দলের সঙ্গে থাকবেন এবং লাহোরের শেষ টি-২০তে অন্য কেউ দায়িত্ব পালন করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.