রোহিঙ্গা ইস্যুতে বন্ধুহীন সরকার : আমীর খসরু

নিজস্ব প্রতিবেদক

রোহিঙ্গা ইস্যুতে সরকার ‘বন্ধুহীন’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।
তিনি বলেছেন, আমরা দেখেছি, এই অঞ্চলে যে আঞ্চলিক সহযোগিতার বিষয়টি ছিল সেখানে আমাদের কোনো বন্ধুই নেই। যারা আমাদের বন্ধু বলেছিল এত দিন, এই সরকার প্রচারণা সত্ত্বেও তারাও কেউ আমাদের পাশে এসে দাঁড়ায়নি। বরঞ্চ এরা সবাই মিয়ানমারের প নিয়েছে। অথচ ইস্যুটা ছিল পরিষ্কার ও স্বচ্ছ। কিন্তু বন্ধুহীনতার কারণে রোহিঙ্গা ইস্যু সমাধান কঠিনপর্যায় চলে গেছে।
গতকাল দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ে জিয়া পরিষদের উদ্যোগে ‘আন্তর্জাতিক আইনে রোহিঙ্গা সমস্যা এবং বাংলাদেশ সরকারের ভূমিকা, সমাধান ও করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভায় খসরু এ কথা বলেন। আলোচনা সভায় মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের অধ্যাপক এসএম হাসান তালুকদার।
খসরু বলেন, যদি প্রথম দিন থেকে সরকার মেরুদণ্ড সোজা করে যথাযথ কূটনৈতিক অবস্থান নিত এবং মানবিক অবস্থানে দাঁড়াত তাহলে বিশ্বের সামনে আমাদের অবস্থান ভিন্ন হতে পারত। বাংলাদেশের জনগণ এই ইস্যুতে একতাবদ্ধ ছিল। আমরা বিএনপির প থেকে বলেছি এখানে কোনো রাজনীতি নয়, আমাদের সবাইকে একতাবদ্ধ হতে হবে।
১৯৭৮ সালে প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ও ১৯৯২ সালে খালেদা জিয়ার আমলে মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বিএনপির সফল সমাধানের কথাও উল্লেখ করেন তিনি।
তিনি বলেন, মিয়ানমার তাদের দেশের একটি জাতিগোষ্ঠীকে নিধন করার জন্য বাংলাদেশকে টার্গেট করে রোহিঙ্গাদের এখানে পাঠিয়েছে।
সংগঠনের চেয়ারম্যান কবীর মুরাদের সভাপতিত্বে ও সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব আবদুল্লাহিল মাসুদের পরিচালনায় আলোচনা সভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক লুৎফর রহমান, অধ্যাপক এমতাজ হোসেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক কামরুল হাসান, অধ্যাপক ফিরোজা বেগম প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.