ঢাকা, রবিবার,১৯ নভেম্বর ২০১৭

এশিয়া

জাপানে সাবমেরিন মোতায়েন করেছে কানাডা

নয়াদিগন্ত অনলাইন

২১ অক্টোবর ২০১৭,শনিবার, ২০:০০ | আপডেট: ২১ অক্টোবর ২০১৭,শনিবার, ২০:২৬


প্রিন্ট
জাপানে সাবমেরিন মোতায়েন করেছে কানাডা

জাপানে সাবমেরিন মোতায়েন করেছে কানাডা

জাপানের ইয়োকোসুকায় সাবমেরিন মোতায়েন করেছে কানাডা। টহল মিশনে এসেছে কানাডার রাজকীয় নৌবাহিনীর সাবমেরিন এইচএমসিএস চিকোটিমি। এই মিশনের উদ্দেশ্য হলো মিত্রদের সঙ্গে সম্পর্ক বৃদ্ধি করা। 

গত মাসে বৃটিশ কলাম্বিয়ার ভ্যানকুয়েভার দ্বীপের এসকুইমাল্ট ছাড়ে সাবমেরিনটি। প্রশান্ত মহাসাগর পাড়ি দিয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পৌঁছেছে জাপানের ইয়োকোসুকায়।

মেজর ট্রাভিস স্মিথ এক বিবৃতিতে বলেছেন, এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে কানাডার সশস্ত্র বাহিনীর যে প্রতিশ্রুতি তারই প্রকাশ হলো এই সাবমেরিনের উপস্থিতি।

কানাডার হাতে ভিক্টোরিয়া-ক্লাসের চারটি সাবমেরিন আছে। এইচএমসিএস চিকোটিমি ২০১৮ সালের মার্চ পর্যন্ত প্রশান্ত মহাসাগরে  থাকবে।

সূত্র : সিবিসি নিউজ

সামরিক শক্তি বৃদ্ধি করছে জাপান

উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হুমকি মোকাবেলায় সামরিক শক্তি বৃদ্ধির চিন্তা করছে জাপান। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর দেশটি তার দীর্ঘমেয়াদী শান্তিকামী দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন করে ক্ষেপনাস্ত্র প্রতিরক্ষা কার্যক্রম জোরদারে নতুন প্রস্তাবনা হাতে নিয়েছে। এমনকি শত্রু ঘাঁটিতে পাল্টা হামলার সক্ষমতা বাড়াতে যুদ্ধোত্তর সংবিধানকে ঢেলে সাজানোরও চিন্তা করছে তারা।

জাপানের সামরিক বাহিনীতে বর্তমানে ২৪৭১৭৩ জন সেনা কর্মরত আছে। সেনার আকারে ছোট হলেও অস্ত্র-সস্ত্র দেশটির সামরিক বাহিনীকে এগিয়ে রেখেছে। জাপানের সামরিক বাহিনীতে ৬৭৮টি ট্যাংক, ১৫১৩টি উড়োজাহাজ এবং ১৬টি সাবমেরিন রয়েছে। দেশটির বার্ষিক সামরিক ব্যয় ৪১.৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।


উল্লেখ্য পার্ল হারবারে মার্কিন নৌবাহিনীর ওপর ইতিহাসের ভয়াবহতম হামলা চালিয়েছিল জাপান। এর ৭৬ বছর পর ফের পরাক্রমশালী সামরিক শক্তিতে পরিণত হতে যাচ্ছে দেশটি। সামরিক দিক থেকে টোকিও এতটাই শক্তিশালী হয়েছে যে, বিশ্বের যেকোনো দেশের সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে তারা লড়াই করার সক্ষমতা রাখে। জাপানের নৌবাহিনী বিশ্বের সেরা পাঁচ নৌবাহিনীর একটি। অর্থাৎ শক্তিশালী দেশগুলোকে চ্যালেঞ্জ করতেও প্রস্তুত হচ্ছে জাপান।

সূত্র: বিজনেস ইনসাইডার ও সিএনএন

 

 

 

অন্যান্য সংবাদ

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫