ঢাকা, বৃহস্পতিবার,২৩ নভেম্বর ২০১৭

খুলনা

যশোরে যুবতী হত্যা : অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

যশোর অফিস

২১ অক্টোবর ২০১৭,শনিবার, ১৮:৩৮


প্রিন্ট

স্বামী, সন্তান আর ধর্ম ছেড়ে প্রেমের টানে নতুন সংসার পেতেছিলেন যশোরের পার্বতী দাস ওরফে নুসরাত জাহান। তবে যাকে ভালবেসে নতুন স্বপ্ন দেখেছিলেন সেই নীরব ওরফে রাব্বিই তার বন্ধুদের সহায়তায় তাকে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। 

শুক্রবার সকালে পার্বতীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই দিন রাতেই তার মা যমুনা দাস যশোর কোতোয়ালি মডেল থানায় এমন অভিযোগ দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, সাত বছর আগে মাগুরার শালিখা উপজেলার বৈখালী গ্রামের দ্বীন রায়ের ছেলে মহিতোষ রায়ের সঙ্গে পার্বতীর বিয়ে হয়। তাদের ঘরে অভি (৬) নামে একটি ছেলে আছে। অভির জন্মের ১৬ মাস পর পার্বতীর স্বামী মহিতোষ ভারতে চলে যান। অভি তার ঠাকুরমার কাছে থাকে। পার্বতীর সঙ্গে শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বনিবনা না হওয়ায় তিনি মায়ের কাছে থাকতেন। স্বামী ভারতে যাওয়ায় পার্বতী একটি গার্মেন্টেস এ কাজ নেন। এক পর্যায়ে নীরব ওরফে রাব্বির সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মাস তিনেক আগে পার্বতী হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে নিরবকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকে তারা যশোরের ঝুমঝুমপুর এলাকায় ভাড়া বাড়িতে থাকতেন।

নিহতের মা যমুনা দাসের অভিযোগ, বৃহস্পতিবার রাতে পার্বতী ও তিনি কালীপূজা দেখতে যান। সেখান থেকে একটি মোটরসাইকেলে করে রাব্বি, বিপুল ও মিলন হিজড়া পার্বতীকে নিয়ে যায়। ওরাই পার্বতীকে হত্যা করেছে।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মোখলেসুর রহমান বলেন, ‘এই হত্যার ব্যাপারে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। তদন্তের স্বার্থে এখনই তা জানানো সম্ভব হচ্ছে না। তবে দ্রুতই এই হত্যার সাথে জড়িতদের আটক করা হবে।’

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫