ঢাকা, রবিবার,১৯ নভেম্বর ২০১৭

এশিয়া

পারমাণবিক চুল্লি তৈরির কাজ চালিয়ে যাবে দ.কোরিয়া

এএফপি

২০ অক্টোবর ২০১৭,শুক্রবার, ১০:২২ | আপডেট: ২০ অক্টোবর ২০১৭,শুক্রবার, ১০:৪০


প্রিন্ট
পারমাণবিক চুল্লি তৈরির কাজ চালিয়ে যাবে দক্ষিণ কোরিয়া

পারমাণবিক চুল্লি তৈরির কাজ চালিয়ে যাবে দক্ষিণ কোরিয়া

দক্ষিণ কোরিয়া শুক্রবার নতুন করে দুটি পারমাণবিক চুল্লি নির্মাণের কাজ এগিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিগত কয়েক মাস ধরে উত্তপ্ত বিতর্কের পর তারা এ সিদ্ধান্ত নিলো।

খবরে বলা হয়, স্টেট কমিশন দেশটির উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় উলসান নগরীর কাছের শিন কোরি-৫ ও শিন কোরি-৬ পারমাণবিক চুল্লি নির্মাণের কাজ শেষ করার সুপারিশ করেছে।

কমিশনের চেয়ারম্যান কিম জি-হিউন এক বিবৃতিতে বলেন, ‘আমরা এ দুটি পারমাণবিক চুল্লির কাজ পুনরায় শুরু করার সুপারিশ করেছি।’

চুল্লি দুটির ৩০ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর গত জুলাই মাসে এসবের নির্মাণ কাজ স্থগিত করা হয়। নিরাপত্তা উদ্বেগের কারণে এ নিয়ে বিতর্কের প্রেক্ষাপটে চুল্লি দুটির নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়া হয়।

সরকার ইতোমধ্যে জানিয়ে দেয় যে, এ দুটি পারমাণবিক চুল্লির নির্মাণের ব্যাপারে কমিশন যে সুপারিশ করবে তা সরকার মেনে নেবে।

উল্লেখ্য, চুল্লি দুটি নির্মাণে ইতোমধ্যে ১৪০ কোটি ডলার ব্যয় করা হয়েছে।

পরমাণু ডুবোজাহাজ তৈরি করছে উত্তর কোরিয়া

উত্তর কোরিয়া গোপনে পরমাণু শক্তিচালিত ডুবোজাহাজ তৈরি করছে। আগামী দুই বছরের মধ্যে এটি নির্মাণের কাজ শেষ হবে বলে দেশটি প্রত্যাশা করছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি তথ্যাভিজ্ঞ মহলের বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে জাপানি দৈনিক সেকাই নিপ্পো। সূত্রটি উত্তর কোরিয়ার পরিস্থিতি সম্পর্কে পরিচিত বলেও দাবি করেছে দৈনিকটি।

খবরে আরো দাবি করা হয়েছে, উত্তর কোরিয়ার নাম্পো ন্যাভাল শিপইয়ার্ডে এটি নির্মাণে একযোগে সহায়তা করছে চীন ও রাশিয়ার প্রকৌশলীরা।

ডিজেল-বিদ্যুতের চেয়ে পরমাণু ডুবোজাহাজ নির্মাণের কাজ তুলনামূলকভাবে জটিল ও ব্যয় বহুল। অবশ্য পরমাণু ডুবোজাহাজের গতি অনেক বেশি হয়। সাগর তলে প্রায় অনির্দিষ্টকাল ওঁত পেতে বসে থাকতে পারে। জ্বালানির জন্য পানির ওপর ওঠার কোনো প্রয়োজন না থাকায় এমনটি সম্ভব হয়। এ ছাড়া, এ ধরণের ডুবোজাহাজ দিয়ে চালানো যায় বহুমুখী ও বিস্তৃত তৎপরতা।

পরমাণু ডুবোজাহাজ সাধারণভাবে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র সজ্জিত হয়ে থাকে। ভূমিভিত্তিক ক্ষেপণাস্ত্রের চেয়ে তুলনামূলক সংগোপনে ও নিঃশব্দে এ অস্ত্র পানির তল থেকে ছোঁড়া যায়। পিয়ংইয়ংয়ের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি দিনের পর দিন জোরদার হয়ে উঠছে। এ ছাড়া, দেশটি ২০১৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত কমপক্ষে ছয় দফা ডুবোজাহাজ থেকে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়েছে।

উত্তর কোরিয়া বহরে ৫০ থেকে ৬০টি ডিজেল-বিদ্যুৎ চালিত ডুবোজাহাজ রয়েছে। পরমাণু ডুবোজাহাজ যোগ হলে তাতে নৌবহরের সক্ষমতা নিঃসন্দেহে এক লাফে বহুদূর এগিয়ে যাবে।

 

 

অন্যান্য সংবাদ

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫