ঢাকা, বৃহস্পতিবার,২৩ নভেম্বর ২০১৭

রাজনীতি

খালেদা জিয়াকে অভ্যর্থনা জানাতে ৪জনকে বিমানবন্দরের ভেতরে থাকার অনুমতি

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৮ অক্টোবর ২০১৭,বুধবার, ১৫:২৬ | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০১৭,বুধবার, ১৮:৪০


প্রিন্ট
ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

দেশে ফিরলে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে বিমানবন্দরের ভেতরে অভ্যর্থনা জানাতে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ৪ জনকে সেখানে থাকার অনুমতি দেয়া হয়েছে।

বিএনপির সহ-শ্রম বিষয়ক সম্পাদক ফিরোজ উজ জামান মামুন মোল্লা আজ বুধবার দুপুরে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, বিমানবন্দরের ভেতরে থাকার জন্য বিএনপির ৮ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দলের অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। তবে বিমান কর্তৃপক্ষ ৪ জনকে অনুমতি দিয়েছেন। বিমান থেকে বেগম জিয়া অবতরণ করার তারা ম্যাডামকে অভ্যর্থনা জানিয়ে রিসিভ করবেন।

যাদেরকে বিমানবন্দরের থাকার অনুমতি দেয়া হয়েছে তারা হলেন, দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও সাবেক আইজিপি আবদুল কাইয়ুম, দেহরক্ষী মাসুদ রানা ও গুলশান কার্যালয়ের কর্মচারী জসিম।

এছাড়া বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীসহ দলীয় নেতারা বিমানবন্দরের বাইরে অবস্থান করছেন। কিন্তু খালেদা জিয়াকে অভ্যর্থনা জানাতে বিমানবন্দরের যাওয়া নেতাকর্মীদের সেখানে দাঁড়াতে দিচ্ছে না পুলিশ। তাই তারা ‍দূরবর্তী স্থানে মহাসড়কের বাইরে অবস্থান নিয়েছেন।

দীর্ঘ আড়াই মাসেরও বেশি সময় লন্ডনে চিকিৎসা শেষে আজ বুধবার বিকেলে দেশে ফিরছেন খালেদা জিয়া।

বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান জানিয়েছেন, সন্ধ্যা ৫টা ২০ মিনিটের দিকে অ্যামিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে খালেদা জিয়া হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করবেন।

তিনি জানান, লন্ডনের স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাত ১০টা ১৫ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় রাত ৩টা ১৫ মিনিট) খালেদা জিয়াকে বহনকারী এমিরেটস এয়ারলাইন্সের বিমানটি (ইকে-৫৮৬) হিথ্রো বিমানবন্দর থেকে দুবাইয়ের উদ্দেশে ছেড়েছে।

দেশে ফেরার সময় লন্ডনে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ও বেগম জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমান, স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মী ও পরিবারের সদস্যরা খালেদা জিয়াকে বিদায় জানান।

দলীয় সূত্র জানায়, বেগম জিয়া দেশে ফিরেই আগামীকাল বৃহস্পতিবার পুরান ঢাকায় আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে হাজিরা হতে পারেন। কারণ বর্তমানে তার বিরুদ্ধে তিনটি মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে।

বাসে পেট্রোলবোমা হামলার মামলায় গত ৯ অক্টোবর বিএনপির চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন কুমিল্লার জেলা ও দায়রা জজ জেসমিন বেগম। এ ছাড়া ১২ অক্টোবর ঢাকায় দুটি আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। মানহানির মামলায় ঢাকা মহানগর হাকিম নূর নবী এবং জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিশেষ আদালতের বিচারক ড. আক্তারুজ্জামান এ দুটি পরোয়ানা জারি করেন।

প্রসঙ্গত, চোখ ও পায়ের উন্নত চিকিৎসার জন্য গত ১৫ জুলাই লন্ডন যান খালেদা জিয়া।

 

 

অন্যান্য সংবাদ

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫