ঢাকা, বৃহস্পতিবার,২৩ নভেম্বর ২০১৭

সিনেমা

দেড় যুগ পর শবনম

আলমগীর কবির

১৭ অক্টোবর ২০১৭,মঙ্গলবার, ১৭:১৫


প্রিন্ট

দীর্ঘ ১৮ বছর অর্থাৎ দেড় যুগ পর অভিনয় ফিরছেন চলচ্চিত্রের জীবন্ত কিংবদন্তী নায়িকা শবনম। ১৯৯৯ সালে কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘আম্মাজান’ চলচ্চিত্রে নাম ভূমিকায় অভিনয়ের পর শবনমকে আর কোন চলচ্চিত্রে অভিনয়ে দেখা যায়নি। তবে এই সময়ে তার কাছে বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব গেলেও গল্প মৌলিক নয় বিধায় তিনি অভিনয়ে সম্মতি দেননি।

দেশের চলচ্চিত্রে অভিনয় দিয়ে চলচ্চিত্রে তার অভিষেক হলেও একসময় পাকিস্তানের চলচ্চিত্রে অভিনয় করেই তিনি খ্যাতি লাভ করেন। তবে বিভিন্ন সময়ে তিনি ঢাকার চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন। দীর্ঘ আঠারো বছর পর শবনম আবারো অভিনয়ে ফিরছেন ঠিকই, তবে এবার চলচ্চিত্রে নয়। পাকিস্তানের একটি চ্যানেলের জন্য শতপর্বের একটি সিরিয়ালে তিনি অভিনয় করতে যাচ্ছেন।

সিরিয়ালটির নাম ‘মোহিনী ম্যানসন কি সানড্রিলা’। এটি নির্মাণ করবেন আলী তাহের। এরইমধ্যে শবনম সিরিয়ালটিতে অভিনয়ের জন্য স্ক্রিপ্টও পেয়েগেছেন। সিরিয়ালটিতে শবনম ‘শাবানা ঝরনা’ চরিত্রে অভিনয় করবেন।

শবনম বলেন,‘ অনেক বছরতো অপেক্ষা করেছি দেশের চলচ্চিত্রে ভালো গল্পে অভিনয় করতে। কিন্তু সেই অপেক্ষা যেন শেষই হচ্ছেনা। কাজী হায়াৎ’র আম্মাজান’র পর আর কোন চলচ্চিত্রেই অভিনয় করা হলো না আমার। এদিকে আমার স্বামী রবিন ঘোষও চলেগেলেন পরপারে। একমাত্র ছেলে রনিও প্রায়ই দেশের বাইরে থাকে। যে কারণে মাঝে মাঝে একা সময় কাটাতে হয়, যা কী না ভীষণ কঠিন। এরমধ্যে একদিন আলী তাহের ফোনে সিরিয়ালটিতে আমাকেই লাগবে বলে স্ক্রিপ্ট পাঠায়। আমারও পছন্দ হলো। সবমিলিয়ে কাজটি করতে সম্মতি প্রকাশ করি। তাছাড়া আমার সবধরনের সুবিধাকে বিবেচনায় রেখেই তারা আমাকে নিয়ে সিরিয়ালটি নির্মাণ করবেন। সময়টা আমার ব্যস্ততার মধ্যে কাটবে, এমনটাই চেয়েছিলাম।’

সিরিয়ালটির শুটিং-এ অংশ নিতে আজ শবনম পাকিস্তানের উদ্দেশে রওয়ানা হবেন। সেখানে একমাস শুটিং করবেন তিনি। অশোক ঘোষের ‘নাচের পুতুল’ চলচ্চিত্রের ‘আয়নাতে ঐ মুখ দেখবে যখন কপোলের কালো তিল পড়বে চোখে’ গানটি এখনো অনেক শ্রোতা দর্শকের কাছে ভীষণ পছন্দের। এই চলচ্চিত্রে তার বিপরীতে ছিলেন নায়ক রাজ্জাক। শুধু তাই নয় পরবর্তীতে গাজী মাজহারুল আনোয়ার পরিচালিত ‘সন্ধি’ চলচ্চিত্রের ‘একটা চিঠি লিখে দাও তুমি সবারে জানাও’ গানটিও বেশ জনপ্রিয়তা পায়। এই গানে লিপসিং করেছিলেন শবনম ও রাজ্জাক।

‘নাচের পুতুল’, ‘সন্ধি’ ছাড়া ছাড়া ঢাকার সন্দেহ, কারণ, সহধর্মিনী, শর্ত, যোগাযোগ, জুলি, বশিরা, দিলসহ আরো বেশ কিছু চলচ্চিত্রে তিনি অভিনয় করেন। শিশুশিল্পী হিসেবে ‘আসিয়া’ চলচ্চিত্রে তিনি প্রথম অভিনয় করেন। এরপর ‘এদেশ তোমার আমার’,‘কখনো আসেনি’, ‘তানহা’ ‘বিষকন্যা’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। নায়িকা হিসেবে তিনি প্রথম অভিনয় করেন মুস্তাফিজ পরিচালিত ‘হারানো দিন’ চলচ্চিত্রে। এতে তার বিপরীতে ছিলেন রহমান।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫