ঢাকা, বুধবার,১৮ অক্টোবর ২০১৭

মোবাইল

আইফোন ৮, গ্যালাক্সি ৮ নাকি পিক্সেল ২

জনপ্রিয়তায় শীর্ষে কোন ডিভাইস?

আহমেদ ইফতেখার

১৩ অক্টোবর ২০১৭,শুক্রবার, ১৯:১৬


প্রিন্ট

স্মার্টফোনের এই যুগে এসে যখন প্রতিদিনই বাজারে আসছে নিত্যনতুন স্মার্টফোন। সাম্পতিক সময়ে স্যামসাং, অ্যাপল এবং সর্বশেষ গুগলের স্মার্টফোন নিয়ে চলছে মাতামাতি। চমৎকার, আধুনিক ও শক্তিশালী এসব স্মার্টফোন থেকে নিজের জন্য সবচেয়ে সেরা ফোনটি বেছে নেয়াটা কিছুটা কষ্টসাধ্যই হয়ে উঠেছে গ্রাহকের জন্য। স্যামসাং, অ্যাপল ও গুগলের নতুন প্রিমিয়াম হ্যান্ডসেট নিয়ে লিখেছেন আহমেদ ইফতেখার

স্মার্টফোন বাজারের জন্য চলতি বছরকে গুরুত্বপূর্ণ মনে করা হচ্ছে। সর্বশেষ গত ৪ অক্টোবর পিক্সেল ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন উন্মোচন করেছে গুগল। ফলে এই বছরে স্মার্টফোন বাজারে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পড়েছে অ্যাপল, স্যামসাং ও গুগল। এই তিন প্রতিষ্ঠানের নতুন প্রিমিয়াম হ্যান্ডসেট নিয়ে এরই মধ্যে তুলনামূলক আলোচনা শুরু হয়েছে। গুগল পিক্সেল ২ স্মার্টফোন আকার, স্পেসিফিকেশন ও মূল্য বিবেচনায় আইফোন ৮ এবং গ্যালাক্সি এস ৮-এর মতোই।

ডিজাইন
গ্যালাক্সি এস ৮-এর নতুন আঙ্গিকের ইনফিনিটি ডিসপ্লে ও কম বেজেলের কারণে নকশার দিক এগিয়ে রয়েছে। এ ক্ষেত্রে প্রতিদ্বন্দ্বী দুই প্রতিষ্ঠানের ডিভাইসে তুলনামূলক বেশি বেজেল ব্যবহার করা হয়েছে। এ ছাড়া অ্যাপল ও গুগলের নতুন ডিভাইসের নকশা চলতি বছর বাজারে আসা অন্য ডিভাইসের নকশার তুলনায় নতুনত্ব কম। স্মার্টফোন ক্রেতাদের কাছে ডিভাইসটি দেখতে কতটা আকর্ষণীয় সেটি গুরুত্বপূর্ণ।
ডিসপ্লে

আইফোন ৮-এ ৭৫০-১৩৩৪ পিক্সেল রেজুলেশনের ৪ দশমিক ৭ ইঞ্চি ডিসপ্লে আছে। এক্ষেত্রে গ্যালাক্সি এস ৮-এ আরো বড় ১৪৪০-২৯৬০ পিক্সেল রেজুলেশনের ৫ দশমিক ৮ ইঞ্চি ডিসপ্লে আছে। পিক্সেল ২ ডিভাইসটিতে আছে ১৯২০-১০৮০ পিক্সেল রেজুলেশনের ৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে। গুগল পিক্সেল২ স্মার্টফোনের ডাইমেনশন এখনো প্রকাশ করেনি। তবে আইফোন ৮-এর মতোই হবে।

স্পেসিফিকেশন
গ্যালাক্সি ৮ ও পিক্সেল ২ ডিভাইস দু’টিতে স্ন্যাপড্রাগন ৮৩৫ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। তবে নির্দিষ্ট কিছু অঞ্চলের জন্য গ্যালাক্সি এস ৮-এর কিছু সংস্করণে তাদের নিজস্ব এক্সিনোস ৮৮৯৫ অক্টাকোর প্রসেসর ব্যবহার করেছে। অন্য দিকে আইফোন ৮-এ ব্যবহার করা হয়েছে অ্যাপল এ১১ বায়োনিক প্রসেসর, যা বেঞ্চমার্ক গতি পরীক্ষায় স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসরকে পেছনে ফেলেছে।
আইফোন ৮-এ ২ গিগাবাইট র‌্যাম ব্যবহার করা হলেও, গ্যালাক্সি এস ৮ এবং পিক্সেল ২ স্মার্টফোনে ৪ গিগাবাইট র‌্যাম ব্যবহার করা হয়েছে। ৬৪ ও ২৫৬ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ তথ্য সংরক্ষণ সুবিধাসহ আইফোন ৮ বাজারে পাওয়া যাবে। এতে মাইক্রো এসডি কার্ড ব্যবহারের কোনো সুবিধা রাখা হয়নি। তবে গ্যালাক্সি এস ৮ ৬৪ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ তথ্য সংরক্ষণের সুবিধাসহ সরবরাহ করা হবে, যা মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে বর্ধিত করা যাবে। এছাড়া পিক্সেল ২-এর ৬৪ ও ১২৮ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ তথ্য সংরক্ষণ সুবিধার দুই সংস্করণ বাজারে পাওয়া যাবে।

ফিচার
বর্তমান সময়ে স্মার্টফোন ক্যামেরা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আইফোন ৮ ও পিক্সেল ২ স্মার্টফোনে ১২ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা থাকলেও গ্যালাক্সি এস ৮-এ ১২ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। তিনটি ডিভাইসই পানিরোধী। গভীর পানিতে আইফোন ৮ ও পিক্সেল ২ স্মার্টফোনের চেয়ে বেশি সময় টিকে থাকতে পারবে গ্যালাক্সি এস ৮। তবে এ তিন ডিভাইসের মধ্যে শুধু পিক্সেল ২ স্মার্টফোনে ওয়্যারলেস চার্জিং সুবিধা নেই।
ডিভাইসের ব্যাটারির আকার কখনোই ব্যাটারি লাইফের সঠিক নির্দেশক নয়। আইফোন ৮, গ্যালাক্সি এস ৮ ওং পিক্সেল ২ স্মার্টফোনে যথাক্রমে ১৮২১, ৩০০০ ও ২৭০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে।

মূল্য
আকর্ষণীয় ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস আইফোন ৮, গ্যালাক্সি এস ৮ ও পিক্সেল ২ ডিভাইস তিনটির মধ্যে আইফোন ৮-এর জন্য গুনতে হবে ৬৯৯ ডলার, গ্যালাক্সি এস ৮-এর জন্য ৭৫০ ডলার এবং পিক্সেল ২ কেনা যাবে ৬৪৯ ডলারে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫