ঢাকা, সোমবার,১১ ডিসেম্বর ২০১৭

উপমহাদেশ

স্বেচ্ছায় ইসলাম গ্রহণ করেছেন হিন্দু তরুণী অশোকান : তদন্তেও প্রমাণিত

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

১১ অক্টোবর ২০১৭,বুধবার, ১৮:১৯


প্রিন্ট
স্বেচ্ছায় ইসলাম গ্রহণ করেছেন হিন্দু তরুণী অশোকান : তদন্তেও প্রমাণিত

স্বেচ্ছায় ইসলাম গ্রহণ করেছেন হিন্দু তরুণী অশোকান : তদন্তেও প্রমাণিত

ভারতের কেরালার হিন্দু তরুণী অশোকান ওরফে হাদিয়া আখা আখিলাকে ইসলাম গ্রহণ করতে বাধ্য করা হয়নি বলে সিবিআইয়ের তদন্ত রিপোর্টে বলা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, হাদিয়া পুরোপুরি তার নিজের সিদ্ধান্তেই ইসলাম গ্রহণ করেছেন।


কেরালার আরনাকুলাম ক্রাইম ব্রাঞ্চের এসপি সন্তোষ কুমারের নেতৃত্বাধীন তদন্ত টিম রাজ্যের অপরাধ শাখার ডিজিপি হেমচন্দ্রনের কাছে এই তদন্ত রিপোর্ট জমা দিয়েছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, হাদিয়া নিজেই এই বিষয়ে একটি বিবৃতি দিয়েছেন। রিপোর্টে আরো বলা হয়েছে, কোনো সংগঠন বা দল তাকে ধর্মান্তরের জন্য প্রভাবিত করছেÑ এরূপ কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।


ভারতীয় জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার (এনআইএ) তদন্তের বিরোধিতা করে শনিবার সুপ্রিম কোর্টে একটি হলফনামা জমা দেয় রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকারের ওই হলফনামায় বলা হয়, রাজ্য পুলিশের তদন্ত সুষ্ঠুভাবে চলছে। এনআইএ’র তদন্ত বাতিলের জন্য হাদিয়ার স্বামী শেফিন জাহানের আবেদন খারিজের সময় রাজ্য সরকার বিষয়টি স্পষ্ট করেছিল। গত ১৬ আগস্ট তৎকালীন প্রধান বিচারপতি জে এস খেহারের নেতৃত্বাধীন একটি ডিভিশন বেঞ্চ মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য এনআইএ’র অপরাধ শাখার কাছে হস্তান্তর করেছিলেন। তবে শেফিন এই আদেশের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের কাছে আবেদন জানান।

ওই আবেদনে তিনি বলেন, তার স্ত্রী ২০১৪ সালে সম্পূর্ণ নিজের ইচ্ছাতেই ইসলামে ধর্মান্তরিত হয়েছেন এবং ধর্মান্তরের পর তাদের বিবাহ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এরপর প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বে একটি বেঞ্চ আদেশ দেন, তাদের বিবাহ বাতিলের হাইকোর্টের রায় এবং এনআইএ’কে দেয়া তদন্তের আদেশ বৈধ ছিল কি না তা আদালত পর্যালোচনা করবে। সুপ্রিম কোর্ট মামলাটি আবারো বিবেচনা করবে। গত ১০ জুলাই আখিলা তার কাসারাগদ জেলার উদুমার বাড়ি ত্যাগ করেন। বাড়ি ত্যাগ করার আগে তিনি ১৫ পৃষ্ঠার একটি চিঠি লিখে যান। এতে তিনি তার অভিজ্ঞতা ও ইসলামের প্রতি আকৃষ্ট হওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করেন। বাড়ি ছাড়ার পর তিনি তার মামার সঙ্গে যোগাযোগ করেন এবং তাকে জানান, তিনি তার বাড়িতে শান্তি খুঁজে পেতে সমর্থ হননি।

অযোধ্যায় রামমূর্তি গড়ছে বিজেপি

টাইমস অব ইন্ডিয়া

বিশ্বের সবচেয়ে বড় রামমূর্তি নির্মাণ করতে যাচ্ছেন ভারতের উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। সম্ভবত সেই রামমূর্তির উচ্চতা হবে প্রায় ১০০ মিটারের কাছাকাছি। অযোধ্যায় সরযু নদীর তীরে এই রামমূর্তি গড়ে তোলা হবে।


২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে এবার হিন্দুদের কাছে নতুন চমক নিয়ে আসছে উত্তরপ্রদেশ সরকার। জনগণের অর্থ খরচ করে গুজরাটে বল্লভভাই প্যাটেলের মূর্তির পর এবার অযোধ্যায় রামমূর্তি গড়া নিয়ে ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে তুমুল বিতর্ক। 

অযোধ্যায় বাবরি মসজিদ ও রাম মন্দির নিয়ে বিরোধ বহু দিনের। এ নিয়ে সহিংসতার ঘটনাও ঘটেছে। উত্তেজনা নিরসনে হস্তক্ষেপ করতে হয়েছে সুপ্রিম কোর্টকেও। এবার সেই অযোধ্যাতেই সরযু নদীর তীরে প্রায় ১০০ মিটার লম্বা রামের মূর্তি বানাতে প্রস্তুত যোগী আদিত্যনাথ সরকার। যোগী সরকার যে ‘নয়া অযোধ্যা’ বানাতে চলেছেন, এই রামমূর্তি তার সবচেয়ে বড় অংশ হবে বলে মনে করা হচ্ছে। উত্তরপ্রদেশের রাজ্যপাল রাম নায়েককে এই নিয়ে একটা ভিডিও প্রেজেন্টেশেনও দেখিয়েছে রাজ্য পর্যটন দফতর। পর্যটন দফতরের পক্ষ থেকে এই মূর্তিকে ধর্মীয় পর্যটনের একটা অংশ বলেই দেখানো হয়েছে।

ভারতে ট্রাক-বাস সংঘর্ষে হতাহত ১৬
ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় উড়িষ্যা রাজ্যে বুধবার এক সড়ক দুর্ঘটনায় কমপক্ষে একজন নিহত ও ১৫ জন আহত হয়েছে। পুলিশ একথা জানায়। খবর সিনহুয়ার।
এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘রাজ্যের বালেশ্বর জেলায় তালনগরের কাছে আজ সকালে দু’টি যাত্রীবাহী বাসের সাথে একটি দ্রুতগামী ট্রাকের সংঘর্ষ হলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।’
তিনি জানান, এতে ঘটনাস্থলেই বাসের এক যাত্রী নিহত হয়। আহতদের বালেশ্বর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে দু’জনের অবস্থা আশংকাজনক।


ওই কর্মকর্তা বলেন, দুর্ঘটনার পর ট্রাক চালক পালিয়ে গেছে।
তিনি জানান, বাস দু’টি উড়িষ্যা থেকে পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতায় যাচ্ছিল। ট্রাক চালক তার গাড়ির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেললে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
তিনি আরো জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫