ভবন ভাঙতে আবার সময় পেল বিজিএমইএ

চলতি বছরের মার্চে রাজধানীর হাতিরঝিল এলাকা থেকে কার্যালয় সরানোর জন্য বিজিএমইএকে ছয় মাসের সময় বেঁধে দিয়েছিলেন আদালত। এ সময়সীমা গত ১২ সেপ্টেম্বর শেষ হয়েছে। এরপর ভবনটি ভাঙার জন্য আদালতের কাছে আরো এক বছর সময় চেয়ে আবেদন করে বিজিএমইএ। অবশেষে পোশাক কারখানা মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ’র প্রধান কার্যালয় ভাঙার জন্য আরো সাত মাস সময় দিয়েছেন সর্বোচ্চ আদালত। বিজিএমইএ কর্তৃপক্ষের করা এক আবেদনের শুনানি নিয়ে গত রোববার দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মো: আবদুল ওয়াহহাব মিঞার নেতৃত্বে পাঁচ বিচারকের আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন। ১২ সেপ্টেম্বর থেকে নতুন এই সময় গণনা শুরু হবে। মূলত সংগঠনের নতুন ভবনের নির্মাণকাজ শেষ করার আগ পর্যন্ত প্রয়োজনীয় সময় চায় সংগঠনটি। শুনানিতে বিজিএমইএ’র আইনজীবীকে উদ্দেশ করে বিচারপতি ওয়াহহাব মিঞা বলেন, ‘এটাই শেষ সুযোগ। এরপর আর সময় চাইবেন না। এর মধ্যে যা করার করবেন।’ জলাধার সংরক্ষণ আইনের পরিপন্থী হওয়ায় ২০১১ সালের ৩ এপ্রিল বিজিএমইএ ভবন অপসারণের রায় ঘোষণা করেন হাইকোর্ট। আপিল বিভাগও ওই রায় বহাল রাখেন। চলতি বছর মার্চে ভবন সরানোর জন্য তিন বছর সময় চেয়ে আবেদন জমা দেয় বিজিএমইএ। পরে ছয় মাস সময় দিয়ে বিজিএমইএ’র আবেদনটি নিষ্পত্তি করেন আপিল বিভাগ।
ছবি: শাহরিয়ার বিন এলাহি

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.