টিকার কার্যকারীতা নির্ভর করে মনের অবস্থার ওপর!

নয়া দিগন্ত অনলাইন

ভাইরাল ফ্লু এখনও উন্নত দেশগুলোতেও প্রাণঘাতী একটি রোগ। ব্রিটেনেও বিশেষ করে বয়স্ক মানুষ এবং শিশুদের ওপর এর হুমকি কমাতে সরকার থেকে বিনা পয়সায় টিকা দেয়ার ব্যবস্থা রয়েছে।

সেই টিকার ওপর ব্রিটেনের নটিংহ্যাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণার ফলাফলে এখন বলা হচ্ছে, ফ্লুয়ের টিকা কতটা কাজ করবে তা হয়তো অনেকটাই নির্ভর করে টিকা নেয়ার আগে ও পরে মানুষটির মনের অবস্থার ওপর।

মেজাজ ফুরফুরে থাকলেই কেবল টিকা বেশি কার্যকরী হয়।

গবেষকরা ৬৫ থেকে ৮৫ বছর বয়স্ক ১৩৮ জনের ওপর একটি জরীপ চালান। টিকা নেয়ার আগের দুই সপ্তাহ এবং পরের চার সপ্তাহ তাদের মনের অবস্থার ওপর নজর রাখা হয়।

দেখা গেছে, যারা এ ছয় সপ্তাহ ধরে ভালো মেজাজে ছিলেন তাদের রক্তে টিকার প্রতিরোধের ক্ষমতা চার মাস পরেও বেশ জোরালো ছিল।

এটা কি নেহাতই কাকতালীয় নাকি সত্যিই মেজাজের সাথে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা আছে তা নিয়ে গবেষকরা এখনও নিশ্চিত হতে পারছেন না।

এর আগে ভিন্ন কিছু গবেষণায় টিকার কার্যকারিতার সাথে অন্যান্য কিছু বিষয়েরও সম্ভাব্য যোগসূত্রের কথা বলা হয়েছে।

যেমন একটি গবেষণায় বলা হয়েছে, সকালের দিকে টিকা নিলে তা বেশি কার্যকরী হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় বলা হয়েছে টিকার কার্যকারিতার মাত্রা নির্ভর করে জিনগত গঠনের ওপর।

নটিংহ্যাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় গবেষকরা দেখেছেন ব্যক্তির পুষ্টি, শরীর চর্চা বা ঘুমের সাথে টিকার কার্যকারিতার কোনো সম্পর্ক নাই।

সূত্র : বিবিসি

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.