ঢাকা, সোমবার,২০ নভেম্বর ২০১৭

অনলাইন জগৎ

অবশেষে আপস করছে ফেসবুক ও গুগল

আহমেদ ইফতেখার

২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭,বুধবার, ১৭:৩৪ | আপডেট: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭,বুধবার, ১৭:৪২


প্রিন্ট
সরকারের সাথে আপস করছে ফেসবুক ও গুগল

সরকারের সাথে আপস করছে ফেসবুক ও গুগল

ফেসবুক গুগলসহ বড় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ নীতির ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের সরকারের সাথে আপসের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। এক প্রকার আত্মরক্ষামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করে এসব প্রতিষ্ঠান এখন ওয়াশিংটনের রাজনৈতিক হাওয়ায় নিজেদের বদলানো শুরু করেছে।

কয়েক সপ্তাহ আগেই যুক্তরাষ্ট্রের সিনেট একটি বড় ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে, যা আংশিকভাবে প্রযুক্তি শিল্পের মৌলিক আইনি সুরক্ষাকে দূরে ঠেলে দিতে পারে। বর্তমানে ইন্টারনেট জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানগুলো ইউরোপে নতুন নিয়মে পড়ে কোটি কোটি ডলার জরিমানার সম্মুখীন হচ্ছে। তবে এ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো কার্যত যুক্তরাষ্ট্র সরকারের সব ধরনের নিয়ন্ত্রণ মুক্ত রয়েছে। ফলে তাদের বাজারশক্তি ক্রমে বেড়েই চলছে, যেমন ই-কমার্স জায়ান্ট অ্যামাজন যুক্তরাষ্ট্রের অনলাইন বাণিজ্যের প্রায় এক-তৃতীয়াংশের বেশি নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। অন্য দিকে গুগল ও ফেসবুক সম্মিলিতভাবে দেশটির ডিজিটাল বিজ্ঞাপন বাজারের প্রায় ৬০ শতাংশের বেশি নিয়ন্ত্রণ করছে।

শুরু থেকেই এসব প্রতিষ্ঠান প্রযুক্তি শিল্পকে দেশটির ‘বর্ধনশীল শিল্প’ হিসেবে প্রমাণের চেষ্টা করছে। ফলে তারা দেশটির বৃহৎ দুটি দলের রাজনৈতিক নেতাদের কাছে সহায়তার আহ্বান করে আসছে এবং সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এ খাতকে রক্ষা করার দাবি জানাচ্ছে। এসব প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা প্রশাসন সরকারের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করেছে। তবে ওবামার ডেমোক্রটিক দলের কয়েকজন নেতা ২০১৬ সালের নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এসব প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের ওপর নাখোশ হয়েছেন। বর্তমানে ইন্টারনেট জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের আগের অবস্থা থেকে সরে আসছে। এ প্রতিষ্ঠানগুলো দেশটিতে সব ধরনের নিয়ন্ত্রণ এড়াতে চাচ্ছে।

প্রযুক্তি শিল্পসংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, প্রযুক্তি শিল্পে সোনার হংস আর নেই। এ শিল্প দেশের অর্থনীতির একটি যৌক্তিক অংশ হিসেবে ভাবতে শুরু করেছে এবং যা মঙ্গলজনক হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সিলিকন ভ্যালির লবিস্ট ও কংগ্রেসের সহযোগীরা নিয়ন্ত্রণমূলক কঠোর ব্যবস্থা এড়াতে দ্রুত আলাপ-আলোচনা করতে চাচ্ছে। কারণ সরকারি সংস্থাগুলো এ শিল্পের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিতে পারে। ফলে এসব প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের স্বরে স্পষ্ট পরিবর্তন দেখা যাচ্ছে। ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মার্ক জাকারবার্গ প্রথমবারের মতো বলেন, ফেসবুকে কোনো রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করা হলে যে কেউ সে বিজ্ঞাপন সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দেখতে পারবে ফেসবুক এমন পদক্ষেপ নিচ্ছে।

গত বছর অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোটের ফলাফল ফেসবুকের কারণে প্রভাবিত হয়েছে বিভিন্ন পক্ষ থেকে এমন অভিযোগ উঠেছিল। তবে ফেসবুক এমন দাবি বরাবরই অস্বীকার করে আসছে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫