ঢাকা, বুধবার,১৩ ডিসেম্বর ২০১৭

এশিয়া

মার্কিন যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করবে উত্তর কোরিয়া

নয়া দিগন্ত অনলাইন

২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭,মঙ্গলবার, ০৫:৫৫


প্রিন্ট
মার্কিন যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করবে উত্তর কোরিয়া

মার্কিন যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করবে উত্তর কোরিয়া

উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার দেশের বিরুদ্ধে ঘোষণা করায মার্কিন বোমারু বিমানে গুলি করার অধিকার রয়েছে তাদের।
নিউ ইয়র্কে এক সংবাদ সম্মেলনে উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রি ইয়ং হো এই হুমকি দিয়েছেন।
উত্তর কোরিয়ার মন্ত্রী বলেন, এমনকি মার্কিন যুদ্ধ বিমান যদি তার দেশের আকাশসীমার বাইরেও থাকে তাহলেও সেগুলোকে হুমকি হিসাবে বিবেচনা করা হবে।

"সারা বিশ্ব এটাই দেখবে যে যুক্তরাষ্ট্রই প্রথম যুদ্ধ ঘোষণা করেছে।"

গত কয়েক দিন ধরে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এবং কিম জং আনের সরকারের মধ্যে অব্যাহত বাকযুদ্ধের মাঝে রোববার কোরীয় উপদ্বীপের কাছে অত্যাধুনিক মার্কিন যুদ্ধ বিমানের টহল দেওয়ার ছবি পেন্টাগনের সূত্রে সংবাদমাধ্যমে ছাপা হয়।
এই প্রেক্ষাপটেই উত্তর কোরিয়ার কাছ থেকে সোমবার এই হুমকি দেয়া হলো।

তবে দুই দেশের মধ্যে এখনই যুদ্ধ বেঁধে যাওয়ার আশঙ্কা নাকচ করছেন অধিকাংশ পর্যবেক্ষক।

যুক্তরাষ্ট্রের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞায় উত্তর কোরিয়াসহ আরো ৩ দেশ
নয়া দিগন্ত অনলাইন

যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে কয়েকটি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশের ওপর যে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল, তাতে নতুন করে যুক্ত করা হয়েছে উত্তর কোরিয়া, ভেনেজুয়েলা ও শাদকে।
হোয়াইট হাউস বলছে, বিভিন্ন দেশের সরকারের সঙ্গে আলোচনার পর এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।
বিবিসির খবরে জানা যায়, গতকাল রোববার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন।
হোয়াইট হাউস বলছে, আগামী ১৮ অক্টোবর থেকে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। তবে যাদের ভিসার মেয়াদ এর বেশি সময় পর্যন্ত রয়েছে তাদের ওপর এটি কার্যকর হবে না।

নিষেধাজ্ঞার কারণ হিসেবে হোয়াইট হাউস বলছে, উত্তর কোরিয়া যুক্তরাষ্ট্রের সরকারকে সহযোগিতা করছে না। উত্তর কোরিয়ার সব নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। সন্ত্রাস সম্পর্কিত এবং অন্যান্য তথ্য যুক্তরাষ্ট্রকে প্রয়োজনমতো জানাচ্ছে না চাদ। এ কারণে চাদের নাগরিকদের ব্যবসায়িক এবং পর্যটন ভিসা বাতিল করা হয়েছে।
ভেনেজুয়েলায় যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। দেশটির কয়েকজন সরকারি কর্মকর্তা এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

নিষেধাজ্ঞার কারণ হিসেবে হোয়াইট হাউস বলছে, উত্তর কোরিয়া যুক্তরাষ্ট্রের সরকারকে সহযোগিতা করছে না। উত্তর কোরিয়ার সব নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। সন্ত্রাস সম্পর্কিত এবং অন্যান্য তথ্য যুক্তরাষ্ট্রকে প্রয়োজনমতো জানাচ্ছে না চাদ।
এ কারণে চাদের নাগরিকদের ব্যবসায়িক এবং পর্যটন ভিসা বাতিল করা হয়েছে। ভেনেজুয়েলায় যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। দেশটির কয়েকজন সরকারি কর্মকর্তা এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞার তালিকায় থাকা দেশগুলো হলো, ইরান, লিবিয়া, সিরিয়া, ইয়েমেন এবং সোমালিয়া। নতুন নিষেধাজ্ঞায় এর সঙ্গে এই তিনটি দেশ যুক্ত হলো।
সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম অধ্যুষিত এই দেশগুলোতে ট্রাম্পের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা এর মধ্যেই বিতর্কিত ও সমালোচিত হয়েছে। অনেকেই এটিকে ‘মুসলিমদের ওপর নিষেধাজ্ঞা’ হিসেবে অভিহিত করেছে।

গত জুলাই মাস থেকে নিষেধাজ্ঞা আংশিক কার্যকর হয়। ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা কার্যকরে আইনি বাধারও সম্মুখীন হন ট্রাম্প। দেশে-বিদেশে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ চলে। আগামী অক্টোবর মাসে যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেয়া হবে।

 

 

অন্যান্য সংবাদ

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫