ঢাকা, বুধবার,১৩ ডিসেম্বর ২০১৭

সিনেমা

ভেঙে গেল স্পর্শিয়ার বিয়েও

নয়া দিগন্ত অনলাইন

২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭,সোমবার, ০৬:০২ | আপডেট: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭,সোমবার, ০৬:১৭


প্রিন্ট
ভেঙে গেল স্পর্শিয়ার বিয়েও

ভেঙে গেল স্পর্শিয়ার বিয়েও

ছোট পর্দা আর বড় পর্দায় যেন ভাঙনের সুর বেজেই চলছে! মাত্র কয়েক দিন আগে বেশ কয়েকজন আলোচিত শিল্পীর সংসার ভেঙেছে। এবার সে তালিকায় যোগ হয়েছে ছোট মডেল অভিনেত্রী ও সদ্য নায়িকার খাতায় নাম লেখানো অর্চিতা স্পর্শিয়ার নাম। তার স্বামী নির্মাতা রাফসান আহসানের সাথে গত ২১ আগস্ট রাজধানীর মোহাম্মদপুরের কাজী অফিসে ডিভোর্সের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়েছে। যদিও বিষয়টি নিয়ে তারা চুপ ছিলেন। তবে শনিবার বিকালের দিকে হঠাৎ করেই গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে স্পর্শিয়ার সংসার ভেঙে গেছে।

এরপরই যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু সাড়া পাওয়া যাচ্ছিল না। অবশেষে সাড়া পাওয়া গেলে। স্পর্শিয়া একটি সংবাদমাধ্যমকে রোববার দিবাগত রাত ১২টার দিকে রাফসানের সঙ্গে তার সংসার বিচ্ছেদের খবরটি নিশ্চিত করেছেন। সে সময় এর বাইরে তিনি আর কিছুই জানাতে চাননি। আর বলেন, `আমি চাই না এ বিষয়ে কোনো খবর প্রকাশিত হোক। আমি চাই আমার কাজের খবরগুলোই গণমাধ্যমে প্রকাশ করা হোক।’

এ প্রসঙ্গে রাফসানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনিও তাদের ডিভোর্সের বিষয়টি স্বীকার করেন। আর ডিভোর্সের সময় তার এবং স্পর্শিয়ার কাছের বন্ধুরা উপস্থিত ছিলেন জানিয়ে রাফসান বলেন, ‘তবে এখনো স্পর্শিয়ার সাথে আমার যোগাযোগ আছে। গতকাল (শনিবার) সে আমার বাসায় এসে আমার আব্বাকে দেখে গেছে। ডিভোর্সের মাস খানেকে আগে থেকে আমরা আলাদা থাকতে শুরু করি।’

এর কারণ হিসেবে রাফসান দাবি করেন, তাদের সংসারের মধ্যে তৃতীয় ব্যক্তি ঢুকেছিল। যার কারণে তাদের সংসার জীবন জটিল হয়ে পড়ে। এরপরই ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নেন তারা।

২০১৫ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর নির্মাতা রাফসান আহসানের সঙ্গে বাগদান সম্পন্ন হয় স্পর্শিয়ার। আর সে বছরেরই ১ অক্টোবর বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তারা। একটি অনলাইন শপের ভিডিওচিত্র নির্মাণের মাধ্যমেই সখ্যতা গড়ে উঠেছিল রাফসান এবং স্পর্শিয়ার। আর ধীরে ধীরে সেটি রূপ নেয় বন্ধুত্ব, এরপর প্রেম। তারপর পরিণয়ে।

এয়ারটেল পরিচালিত ‘ইম্পসিবল ৫'-এ অভিনয় করে ২০১৩ সালে অভিনেত্রী হিসেবে জনপ্রিয়তা লাভ করেন। এছাড়া বিটিভি তে বিবিসি এর উজান গাঙ্গের নাইয়া তে অভিনয় করে তার কর্মজীবনে ভিন্ন মাত্রা যোগ করেন।

 

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫