ঢাকা, বুধবার,১৩ ডিসেম্বর ২০১৭

রাজশাহী

দুজনকে চাপা দিয়ে বাস পড়ল ডোবায়

নওগাঁ ও রাণীনগর সংবাদদাতা

২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭,শনিবার, ১৬:৩৩ | আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭,শনিবার, ১৭:২২


প্রিন্ট

নওগাঁয় বাস-মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে মোটরসাইকেলের দুই আরোহী নিহত হয়েছেন। শনিবার সকাল ১০টার দিকে শহরের বাইপাস বরুনকান্দি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পর বাসটি উল্টে পাশের ডোবার মধ্যে পড়ে যায়। দুর্ঘটনা কবলিত বাসটি উদ্ধারের চেষ্টা করছে নওগাঁ ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট।
নিহতরা হলেন সদর উপজেলার বরুনকান্দি এলাকার আব্দুল জব্বারের ছেলে অ্যাডভোকেট সোহেল রানা (৩৫) ও ইকড়তাড়া গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে ব্যাংকার মাসুদ রানা (৩৪)। তারা পরস্পরের বন্ধু।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নওগাঁ মোটর মালিক সমিতির সভাপতি শহিদুল ইসলামের এসপি ট্রাভেলস ‘ঢাকা মেট্রো ব-১১-১০৮৭’ বাস যাত্রী নিয়ে সকালে চট্রগাম থেকে এসেছে। বাসটি শহরের বালুডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড থেকে সকাল ১০টার দিকে শহরের বাইপাস বরুনকান্দি এলাকায় বাসের হেলপার পরিষ্কার করার জন্য নিয়ে যাচ্ছিলেন।

অপরদিকে ইকড়তাড়া গ্রাম থেকে ডিসকভার ১৩৫ সিসি মোটরসাইকেল নিয়ে মামা অ্যাডভোকেট সোহেল রানা ও বগুড়া জেলায় যমুনা ব্যাংক শাখায় কর্মরত ব্যাংকার ভাগ্নে মাসুদ রানা বরুনকান্দি আসছিলেন। সোহেল রানা মোটরসাইকলে চালাচ্ছিলেন এবং মাসুদ রানা পেছনে বসে ছিলেন। বরুনকান্দি এক আত্মীয়ের বাড়িতে ফ্রিজে ইলিশ মাছ রাখা ছিল। সেটি নেয়ার জন্যই মূলত তারা মোটরসাইকেল করে আসছিলেন।

দ্রুতগতিতে আসা ওই বাসটি পথিমধ্যে ঘটনাস্থলে পৌঁছালে রাস্তার উপর একটি গরুকে বাঁচাতে গিয়ে ডান পাশে চাপিয়ে দেয়। এতে বিপরীত দিক থেকে আসা ডান পাশের মোটরসাইকেলসহ বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের ডোবার মধ্যে উল্টে পড়ে যায়। বাসের চালক এ সময় পালিয়ে যায়।
দুর্ঘটনা কবলিত বাসটি উদ্ধারের চেষ্টা করছেন নওগাঁ ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিটসহ স্থানীয়রা। বাসের নিচ থেকে দুই লাশ উদ্ধার করা হয়। এ সময় মোটরসাইকেলটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত বাসটি উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

নওগাঁ সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তরিকুল ইসলাম বলেন, নিহতদের লাশ উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫