পুলিশের সহযোগিতায় ইংলাক দেশ ছেড়েছেন : সামরিক জান্তা

নয়া দিগন্ত অনলাইন

থাইল্যান্ডের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রা পুলিশের সহযোগিতায় দেশ ছেড়েছেন। এমন অভিযোগ করেছেন দেশটির উপ-জান্তা নেতা প্রাউত ওয়াংসুক।

সামরিক বাহিনী ২০১৪ সালে তৎকালীন ইংলাক সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে। গত ২৫ আগস্ট থেকে তিনি পলাতক আছেন। ওইদিন তার বিরুদ্ধে করা একটি মামলায় দেশটির আদালতে রায় ঘোষণার দিন তার হাজির হওয়ার কথা ছিলো।

থাই জান্তা বলছে, ইংলাক যে পালিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করছিল তা তারা জানতো না।

অপরদিকে বিশ্লেষকগণ বলছেন, সামরিক জান্তার সাথে গোপন সমঝোতা করেই সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী দেশ ত্যাগ করেন। কিন্তু জান্তা সরকার এ অভিযোগ অস্বীকার করে এবং অভিযোগের আঙ্গুল তুলেছে এখন পুলিশের দিকে। ইতোমধ্যে এ বিষয়ে তিন পুলিশ কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদও করা হয়েছে।

ইংলাক যে গাড়িতে করে কম্বোডিয়ার সীমান্ত পর্যন্ত গিয়েছেন তা আটকের পর সেটার সূত্র ধরে পুলিশ কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

ধারণা করা হচ্ছে, সাবেক প্রধানমন্ত্রী কম্বোডিয়া হয়ে তৃতীয় কোনো দেশে পালিয়ে গেছেন।

থাই সামরিক জান্তা সরকারের দুই নম্বর কর্মকর্তা প্রাউত ওয়াংসুক বলেন, ‘পুলিশ কর্মকর্তাগণ জানিয়েছেন ইংলাককে দেশ ত্যাগে সাহায্য করতে তাদর নির্দেশ দেয়া হয়েছিল।’

তবে পরিকল্পনার মূল হোতা কে সে সম্পর্কে কিছু বলতে অস্বীকার করেন প্রাউত।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.