ঢাকা, বুধবার,১৮ অক্টোবর ২০১৭

আরো খবর

মিয়ানমারে জাতিগত নিধনযজ্ঞ চলছে : ব্রিটিশ প্রতিনিধিদল

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭,শুক্রবার, ০০:১০


প্রিন্ট

ব্রিটিশ পার্লামেন্টারি প্রতিনিধিদলের প্রধান অ্যান মেইন বলেছেন, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে গণহত্যা চলছে। এটি জাতিগত নিধনযজ্ঞ। এতে কোনো সন্দেহ নেই।
গতকাল রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় একটি নৈশভোজে যোগ দিতে এসে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম পার্লামেন্টারি দলের জন্য নৈশভোজের আয়োজন করেন।
প্রতিনিধি দলের সদস্যরা গত দুই দিনে কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদের অবস্থা সরেজমিন দেখেছেন। ‘বাংলাদেশের বন্ধু’ নামে পরিচিত ব্রিটিশ কনজারভেটিভ দলের অন্য সদস্যরা হলেন পল স্কলি ও উইল কুইনস।
অ্যান মেইন বলেন, মিয়ানমার যা করেছে তাতে আমরা হতবাক, আতঙ্কিত। আমরা জানি না কতজন মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। তবে বাংলাদশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের ভাষ্য অনুযায়ী পরিস্থিতি সত্যিই ভয়ঙ্কর। নিরাপদ বোধ করলেই রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে ফেরত যেতে পারে।
পল স্কলি বলেন, মিয়ানমার-বাংলাদেশ সীমান্তে মর্মান্তিক পরিবেশ বিরাজ করছে। আমরা সেখানকার অবস্থা দেখে খুবই মর্মাহত। এটি মানুষ সৃষ্ট সঙ্কট, যা মিয়ানমার সৃষ্টি করেছে। মিয়ানমার সেনাবাহিনীই এ ঘটনা ঘটিয়েছে।
উইল কুইনস বলেন, আমরা কক্সবাজার ক্যাম্প দুই দিন পরিদর্শনে গিয়েছি। আমি বর্ণনা করতে পারব না কী বিভৎস ঘটনা ঘটেছে। এক নারী আমাদের জানালেন, তার ছেলে ও স্বামীকে তার সামনেই হত্যা করা হয়েছে। তার বাড়ি সম্পূর্ণ পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। জীবন বাঁচাতে পাঁচ দিন হেঁটে তিনি বাংলাদেশ এসেছেন। কিন্তু তিনি এ দেশে আসতে চাননি। বাকি সন্তানদের নিয়ে তিনি নিজ দেশ বার্মায় ফিরে যেতে চান। কিন্তু সীমান্তে মিয়ানমার সেনাবাহিনী ল্যান্ড মাইন বিছিয়ে রেখেছে। তারা হত্যা চালিয়ে যাচ্ছে।
বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গারা যাতে রাখাইন রাজ্যে নিজবাড়িতে ফিরে যেতে পারেন, সে জন্য অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টিতে মিয়ানমারের ওপর চাপ প্রয়োগে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ব্রিটিশ এমপিরা।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫