এমবিবিএস ভর্তি নিয়ে আপিল শুনানি ৩ অক্টোবর

নিজস্ব প্রতিবেদক

এমবিবিএস ও বিডিএস কোর্সে দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীর প্রাপ্ত নম্বর থেকে ৫ নম্বর কেটে মেধা তালিকা তৈরির সিদ্ধান্ত স্থগিত করে হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে আগামী ৩ অক্টোবর আপিল শুনানির দিন ধার্য করেছেন চেম্বার আদালত। ওইদিন আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে এ আবেদনের ওপর শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ মেডিক্যাল ডেন্টাল কাউন্সিলের (বিএমডিসি) করা আবেদনের শুনানি শেষে আজ আপিল বিভাগের অবকাশকালীন চেম্বার আদালতের বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকি এ আদেশ দেন।

এর আগে গত ১৪ সেপ্টেম্বর একই আদালত রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের ওপর শুনানি করা হয়। এরপর ১৯ সেপ্টেম্বর পক্ষভুক্তের আবেদন করে বিএমডিসি।

আজ আদালতে বিএমডিসি’র পক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। অপরদিকে রিটের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ।

এর আগে চলতি মাসের ১২ সেপ্টেম্বর বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ ৫ নম্বর কর্তনের সিদ্ধান্ত স্থগিতের আদেশ দিয়ে রুল জারি করেন।

স্বাস্থ্যসচিব, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক, পরিচালক (চিকিৎসা শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন), বাংলাদেশ মেডিক্যাল ও ডেন্টাল কাউন্সিলের (বিএমডিসি) চেয়ারম্যান এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিকে চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

প্রথম বর্ষে এমবিবিএস কোর্সে ভর্তির আবেদন (২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষ) আহ্বান করে গত ২১ আগস্ট পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেয় স্বাস্থ্য অধিদফতর।

এই বিজ্ঞপ্তির ছয় নম্বর পর্যায়ে বলা হয়, ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস বা বিডিএস ভর্তি পরীক্ষায় পূর্ববর্তী বছরের এইচএসসি উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদের সর্বমোট নম্বর থেকে ৫ নম্বর কর্তন করে মেধাতালিকা তৈরি করা হবে।

এর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ২৭ আগস্ট রিট করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ। এই রিটের ওপর দুই দিন শুনানি শেষে আদালত এই আদেশ দেন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.