ঢাকা, শনিবার,২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭

ফুটবল

ফিরেই জোড়া গোলে রিয়ালকে জেতালো রোনালদো

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭,বৃহস্পতিবার, ১৫:৫৪ | আপডেট: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭,বৃহস্পতিবার, ১৬:০০


প্রিন্ট
রোনালদোর গোল উদযাপন

রোনালদোর গোল উদযাপন

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে দলে ফিরেই রিয়াল মাদ্রিদকে জয় উপহার দিয়েছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। পর্তুগীজ এই তারকার দুই গোলে সাইপ্রাসের দল এ্যাপোয়েল নিকোসিয়াকে ৩-০ গোলে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়নস লীগে শুভ সূচনা করেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

দিনের অপর ম্যাচে ওয়েম্বলীতে পরাজয়ের খরা কাটিয়ে টটেনহ্যাম হটস্পার জার্মান জায়ান্ট বরুসিয়া ডর্টমুন্ডকে ৩-১ গোলে পরাজিত করলেও লিভারপুলকে ২-২ গোলে আটকে দিয়েছে সেভিয়া।

রেফারির সাথে অশোভন আচরণের দায়ে রিয়ালের হয়ে গত পাঁচ ম্যাচে নিষিদ্ধ ছিলেন রোনালদো। কিন্তু গতকাল মাঠে ফিরেই নিজেকে প্রমাণে বেশিক্ষণ সময় ব্যয় করেননি এই তারকা। সানতিয়াগো বার্নাব্যুতে গ্যারেথ বেলের লো ক্রস থেকে ১২ মিনিটেই রিয়ালকে এগিয়ে দেন রোনালদো। এরপর ৫১ মিনিটে স্পট কিক থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন। ৬১ মিনিটে দলের পক্ষে তৃতীয় গোলটি করেছেন সার্জিও রামোস। এই নিয়ে গত ৬টি চ্যাম্পিয়নস লীগের ম্যাচে ১২টি গোল পেলেন রোনালদো।

ম্যাচ শেষে মাদ্রিদ বস জিনেদিন জিদান বলেছেন, ‘সে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। আমরা জানি প্রতিটি ম্যাচে সে গোল করতে পারবে। আজকে একটুর জন্য সে চারটি গোল করতে পারেনি। আমরা সবাই তার এই গোল করার যোগ্যতাকে অনুভব করতে পারি।’

রিয়াল অধিনায়ক রামোস বলেছেন, আশা করছি সে ফর্ম ধরে রাখবে। প্রতি বছরই সে নিজেকে যে উচ্চতায় নিয়ে যায় তা নিয়ে কারো প্রশ্ন করার কিছুই থাকে না।

গ্রুপ-এইচ’এর অপর ম্যাচে টটেনহ্যাম হ্যারি কেনের উজ্জীবিত পারফরমেন্সে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডকে ৩-১ গোলে পরাজিত করে রিয়ালের সাথে সমান ৩ পয়েন্ট অর্জন করেছে। এই জয়ের মাধ্যমে ওয়েম্বলীতে স্পারসদের পরজায়ের খরা কাটলো। গত মৌসুমে এই ওয়েম্বলীতে হেরেই চ্যাম্পিয়নস লীগ থেকে বিদায় নিয়েছিল টটেনহ্যাম। এছাড়া এফএ কাপের সেমিফাইনালেও তারা পরাজিত হয়। এবারের মৌসুমেও এই মাঠে চেলসির কাছে পরাজিত হয়েছে ও বার্নলির সাথে ড্র করেছে।

ওয়েম্বলীতে খেলা সর্বশেষ ১২টি ম্যাচের মধ্যে আটটিতেই পরাজিত হয়েছিল টটেনহ্যাম। কিন্তু গতকাল আর সেই তিক্ত অভিজ্ঞতার পুনরাবৃত্তি করতে দেননি কেন। চার মিনিটে দলকে এগিয়ে দেন দক্ষিণ কোরিয়ান উইঙ্গার সন হেয়াং-মিন। ১১ মিনিটে আন্দ্রি ইয়ারমোলেনকোর গোলে সমতা ফেরায় সফরকারী ডর্টমুন্ড। এভারটনের বিপক্ষে শনিবার প্রিমিয়ার লীগের ম্যাচে দুই গোল করা কেন ১৫ মিনিটে দলকে আবারো এগিয়ে দেন। বিরতির পরে ৬০ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোল করে দলের জয় নিশ্চিত করেন।

ম্যাচ শেষে স্পারস বস মরিসিও পোচেত্তিনো বলেছেন, প্রথম ম্যাচে জয় পাওয়াটা দারুণ গুরুত্বপূর্ণ। আমরা দারুণ খুশি। দ্বিতীয়ার্ধে আমরা নিজেদের মান বাড়াতে চেষ্টা করেছি এবং তাতে সফলও হয়েছি। এটা তিন পয়েন্টের থেকেও গুরুত্বপূর্ণ। এই দলটি এখন আরো বেশি পরিণত। হ্যারি কেন অসাধারণ খেলেছে।

এদিকে গ্রুপ-ই’র ম্যাচে এ্যানফিল্ডে নিজেদের মাটিতে রবার্তো ফারমিনহোর পেনাল্টি মিসের খেসারত দিতে হয়েছে লিভারপুলকে। চ্যাম্পিয়নস লীগে দুই বছর অনুপস্থিত থাকার পরে কাল এ্যানফিল্ডে প্রিয় দলকে স্বাগত জানিয়েছিল সমর্থকরা। কিন্তু উইসাম বেন ইয়েডারের ৫ মিনিটের গোলে এগিয়ে যায় স্প্যানিশ দলটি। ২১ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান তারকা ফারমিনহো দলের পক্ষে সমতা আনেন। ৩৭ মিনিটে মোহাম্মদ সালাহ লিভারপুলকে এগিয়ে দেন। কিন্তু ৪২ মিনিটে ফারমিনহোর পেনাল্টির সুযোগ ব্যর্থ হওয়ায় ব্যবধান বাড়াতে পারেনি স্বাগতিকরা। ৭২ মিনিটে লুইস মুরিয়েলের সহায়তায় কার্লোস কোরিয়া সেভিয়াকে এক পয়েন্ট উপহার দেন।

ম্যাচ শেষে লিভারপুল বস ইয়র্গেন ক্লপ বলেছেন, অবশ্য এই ফলাফলে আমি খুশী নই। কিন্তু ম্যাচের সার্বিক দিক নিয়ে আমি সন্তুষ্ট।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫