ঢাকা, শুক্রবার,২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭

বরিশাল

মাসুদ সাঈদী প্রধান অতিথি থাকায় পুলিশের বাধায় ঈদ পুনঃমিলনী পণ্ড

ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) সংবাদদাতা

১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭,মঙ্গলবার, ১৭:৩০


প্রিন্ট
প্যান্ডেল ভেঙ্গে দেয়া হয়। ইনসেটে মাসুদ সাঈদী

প্যান্ডেল ভেঙ্গে দেয়া হয়। ইনসেটে মাসুদ সাঈদী

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে একতা ক্লাব ও পাঠাগারের ঈদ পুনঃমিলনী অনুষ্ঠানকে বিএনপি জামায়াতের পুনঃমিলনী বলে অভিহিত করে পণ্ড করে দিয়েছে পুলিশ।

মঙ্গলবার উপজেলার পত্তাশী ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর এলাকায় একতা ক্লাব ও পাঠাগারের অনুষ্ঠান শুরুর আগে দুপুর ১২ টায় ক্লাবের সদস্য ও আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ অনুষ্ঠান স্থলে পৌছলে পুলিশ অনুমতি নেয়া হয়নি এমন অভিযোগ এনে উপস্থিত সকলকে অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করতে বলে এবং প্যান্ডেল গেট ও তোরণ খুলে ফেলতে এবং চেয়ার টেবিল সরিয়ে নিতে নির্দেশ দেয়।

পুলিশের ভয়ে ক্লাব কমিটির লোকজন আত্মগোপন করায় পুলিশ দাঁড়িয়ে থেকে ডেকোরেটরের লোক দিয়ে এসব মালামাল সরিয়ে ফেলে। ইন্দুরকানী থানার ওসি নাসির উদ্দিন, ওসি (তদন্ত) আব্দুস সালাম সহ একদল পুলিশ সেখানে ঘন্টাব্যাপী অবস্থান করে প্যান্ডেল ভাঙ্গার পর তারা চলে আসেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রামচন্দ্রপুর একতা ক্লাব ও পাঠাগারের সভাপতি সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ রফিকুল ইসলাম জামায়াত সমর্থক হওয়ায় এবং অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা ছিল ইন্দুরকানী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যার মাসুদ সাঈদী, বিশেষ অতিথি সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আব্দুল লতিফ হাওলাদার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আব্দুল খালেক গাজী, স্থানীয় জাতীয় পার্টি ( জেপি) নেতা ও মুক্তিযোদ্ধা বাছাই কমিটির সভাপতি মোশাররফ হোসেন হাওলাদার সহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ, বিএনপি নেতাকর্মী, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও এলাকার সূদীজনের উপস্থিত থাকার কথা ছিল। কিন্ড ক্লাব কর্তৃপক্ষ পুলিশকে বিষয়টি অবহিত না করায় অনুষ্ঠান শুরুর আগেই পুলিশ অনুষ্ঠান ভেঙ্গে দেয়। এ অনুষ্ঠানে ৫ শতাধিক লোকের দাওয়াত ও তাদের দুপুরের খাবার প্রস্তুত ছিল।

রামচন্দ্রপুর একতা ক্লাব ও পাঠাগারের সভাপতি মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান, প্রতি বছর আমরা ক্লাবের সদস্য ও এলাকাবসীকে নিয়ে ঈদ পূনঃমিলনী অনুষ্ঠান করি। এ বছরও সেভাবে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। কিন্ত পুলিশের অনুমতি না নেয়ায় অনুষ্ঠান শুরুর আগেই পুলিশ বাধা দিয়ে অনুষ্ঠান পণ্ড করে।
এ বিষয়ে ইন্দুরকানী থানার ওসি মোঃ নাসির উদ্দিন জানায়, পুলিশের অনুমতি ছাড়া এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করায় উপরের নির্দেশে আমরা তাদের অনুষ্ঠান করতে নিষেধ করেছি।


রোহিঙ্গা মুসলিম হত্যা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে ইন্দুরকানীতে যুবলীগের মানববন্ধন
ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) সংবাদদাতা
রোহিঙ্গা মুসলিম হত্যা, ধর্ষণ ও নির্যাতনের প্রতিবাদে ইন্দুরকানী উপজেলা যুবলীগের উদ্যোগে মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক মাতুব্বর।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মৃধা মোঃ মনিরুজ্জামান, উপজেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি মাহমুদুল হক দুলাল, আওয়ামীলীগ নেতা সাইদুর রহমান, মাহবুব আলম ফকির, হারুন-অর-রশিদ, যুবলীগ নেতা মেহেদী হাসান রিপন, আবুবকর সিদ্দিক লাভলু, ছাত্রলীগ সভাপতি শাহীন হাওলাদার সহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫