ঢাকা, রবিবার,১৯ নভেম্বর ২০১৭

সাতরঙ

স্টাইলে সানগ্লাস : রঙের ফিচার

জেরিন তাসনিম

১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭,মঙ্গলবার, ০০:০০


প্রিন্ট

রোদের তীব্রতা আর ধুলা থেকে চোখ রক্ষা করা খুবই জরুরি। রোদের প্রকোপে তো আর পথ চলা বন্ধ রাখা যায় না। তবে এর প্রতিকার হিসেবে পরম বন্ধুর কাজ করে রোদচশমা বা সানগ্লাস যা চোখকে দেয় রোদ থেকে স্বস্তি। যদিও প্রয়োজনের তাগিদেই এসেছে রোদচশমা। কিন্তু সময়ের বিবর্তনে আজ রূপ নিয়েছে ফ্যাশনে। সানগ্লাসের বিক্রেতারাও এই ধারণার সাথে একমত যে, সানগ্লাস এখন চোখের সুরক্ষার চেয়ে ফ্যাশন অনুষঙ্গ হিসেবেই বেশি জনপ্রিয়।
সূর্যের অতি বেগুনি রশ্মি যা আমাদের চোখের কর্নিয়া এবং রেটিনার ক্ষতি করতে পারে। এ ক্ষতিকর অতি বেগুনি রশ্মিকে সানগ্লাস আমাদের চোখে পৌঁছতে প্রতিহত করে। সূর্যের আলোর তীব্রতা থেকে চোখকে বাঁচাতে সানগ্লাস ব্যবহার করা উচিত।
যেকোনো বয়সের মানুষই সানগ্লাস ব্যবহার করতে পারেন। তবে এর চাহিদা বেশি দেখা যায় তরুণদের মধ্যে। বিশ্ববিদ্যালয়পড়ুয়া ছাত্রছাত্রী এবং চাকরিজীবীদের মধ্যে সানগ্লাস ব্যবহারের হার বেশি।
কেমন সানগ্লাস কিনবেন
সানগ্লাস ব্যবহারের ক্ষেত্রে একটি বিষয় লক্ষণীয় যে, সব সানগ্লাস সবাইকে মানায় না। যেমন যাদের মুখাকৃতি একটু লম্বাটে তাদের ক্ষেত্রে মাঝারি সাইজের স্কয়ার ফ্রেমের সানগ্লাস বেশ মানাবে। আবার ছোট আকৃতির সানগ্লাসও ভালো মানাবে। আবার যাদের মুখ গোলাকৃতির এবং বড় তাদের মোটা ফ্রেমের ভারী গ্লাসের একটু বড় সাইজের যেকোনো শেপের সানগ্লাস ভালো মানাবে। তবে পুরোপুরি রাউন্ড শেপের সানগ্লাস ভালো মানাবে গোলাকৃতির ছোট মুখে। যেকোনো শপিংমল থেকে শুরু করে রাস্তার ফুটপাথেও সানগ্লাস কিনতে পাওয়া যায়। আমাদের দেশেও বিশ্বমানের এবং ব্র্যান্ডের সানগ্লাস পাওয়া যায় যেমন গুচি, বেন্ড ওয়াইজকার ডিওর, মার্ক জ্যাকসন, আরমানি, ডিএনজি, রে বন, ওকলে, প্যারাডা ইত্যাদি। রে বন ব্র্যান্ডের সানগ্লাস পাবেন পাঁচ হাজার থেকে ২০ হাজার টাকার মধ্যে, গুচি পাবেন তিন হাজার থেকে ৩০ হাজার টাকায়।
যতœ নেবেন কিভাবে : তবে ব্যবহারের ক্ষেত্রে অযতœ অবহেলায় সানগ্লাস খুব দ্রুতই নষ্ট হয়ে যেতে পারে। প্রখর রোদেলা দিনে পথ চলতে গিয়ে ঘামে ভিজে যেতে পারে অথবা ধুলোময় হয়ে উঠতে কিংবা অযতেœ স্ক্র্যাচ পড়ে নষ্ট হয়ে যেতে পারে আপনার শখের সানগ্লাস। এ ক্ষেত্রে দিন শেষে টিস্যু অথবা নরম কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে রাখতে হবে। মাঝে মধ্যে স্পিরিট জাতীয় ইমালশন লিকুইড দিয়ে পুরো সানগ্লাস মুছে চকচকে করে রাখলে আরো ভালো। তবে মারকারি গ্লাসের ক্ষেত্রে এই লিকুইড ব্যবহার না করে শুকনো নরম কাপড় দিয়ে ভালোভাবে মুছে রাখাই ঠিক হবে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫