ঢাকা, শনিবার,২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য

খুলনায় চালের পাশাপাশি সবজিতেও দাম বেড়েছে

খুলনা ব্যুরো

১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭,মঙ্গলবার, ০০:০০


প্রিন্ট

খুলনায় সপ্তাহ পার হলেই ক্রেতাদের এক থেকে দুই টাকা বেশি গুণতে হচ্ছে প্রতি কেজি চালে। সেই সাথে যোগ হয়েছে সবজির বাড়তি দাম। কেজি প্রতি ৩০ টাকার নিচে কোনো সবজি পাওয়া যাচ্ছে না। যা গত সপ্তাহে ছিল ২৭ থেকে ২৮ টাকার মধ্যে। নিত্য প্রয়োজনীয় এসব পণ্যের দাম বাড়ায় নি¤œবিত্ত আয়ের মানুষেরা হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।
চাল ব্যবসায়ীরা জানান, ২৯ আগস্ট পাইকারি আড়তে বালাম চাল কেজি প্রতি ৪৭ টাকা ৫০ পয়সা দরে বিক্রি হয়। বর্তমানে আড়তে ওই বালাম চাল ৪৯ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। কবুতর মার্কা বালাম চাল সাড়ে ৪৭ টাকা থেকে বেড়ে ৪৯ টাকা ৫০ পয়াসা, স্বর্ণা মোটা চাল ৩৯ টাকা থেকে বেড়ে ৪২ টাকা ৫০ পয়সা, এআর ঝিরা নামক মিনিকেট চাল ৪৮ টাকা ৫০ পয়সা থেকে বেড়ে ৫০ টাকা, স্বর্ণা মিনিকেট চাল ৫২ টাকা থেকে বেড়ে ৫৪ টাকা ৫০ পয়সা, বালাম-২৮ চাল ৪৬ টাকা থেকে বেড়ে ৪৯ টাকা, মিনিকেট (বিশ্বাস) চাল ৫২ টাকা থেকে বেড়ে ৫৪ টাকা ৫০ পয়াসা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। খুলনার বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায় সবজিতে লাল শাক ৩০ টাকা, পুইশাক ২৫-৩০ টাকা, লাউশাক ৩০ টাকা, ডাটা শাক ৩০ টাকা, ঘিকাঞ্চন শাক ৩০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া প্রতি কেজি টমেটো ৯০ টাকা, শিম ৮০ টাকা, পেঁপে ২৫ টাকা, বেগুন ৪০ টাকা, ঢেঁড়স ৩০-৩৫ টাকা, বরবটি ৩০-৩৫ টাকা, পেঁয়াজ (দেশী) ৪৫-৫০ টাকা, রসুন বড় (দেশী) ১২০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৩০ টাকা, পটল ৩০ টাকা, চাল কুমড়া ২৫ টাকা, এক পিস কলার মোচা ৩৫ থেকে ৪০ টাকা, কাঁচা ঝাল ১১০ টাকা, এবং লাউ ২৫-৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে আলুর দাম এখনো সহনীয় আছে।

নগরীর বয়রা বাজারে আসা শিক্ষক শাহিনা খাতুন বলেন, বাজারে ৩০ টাকার নিচে কোনো সবজি নেই। তবে মূল বাজার থেকে রাস্তার পাশে বসা খুচার বিক্রেতাদের কাছে একটু কম দামে সবজি পাওয়া গেলেও সব আইটেম পাওয়া যায় না। পাশাপাশি চালের দাম বৃদ্ধি তো আছেই। অনেক হিসেব নিকেশ করে বাজার করতে হচ্ছে। নগরীর অভিজাত সন্ধ্যা বাজারের সবজি বিক্রেতা কাজী ইয়াসিন বলেন, ঈদের আগে সব ধরনের সবজির দাম ছিল চড়া। এখনো অব্যাহত রয়েছে। বৃষ্টিতে সবজি ক্ষেত নষ্ট হওয়ার কারণে সরবরাহ কম থাকায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। তবে সরবরাহ বাড়লে দাম কমবে। খুলনা বড় বাজারের চাল বিক্রেতা রাফসান বলেন, চালের দাম বাড়ছে। ক্রেতারা চাল কিনতে এসে দাম বৃদ্ধির খবরে হতাশা ব্যক্ত করছেন।
খুলনার ধান-চাল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মুনির আহমেদ জানান, চালের দাম কমছে না বরং বেড়েই চলেছে। গত সপ্তাহে কেজি প্রতি মোটা চালে এক টাকা ও মিনিকেট প্রকার ভেদে এক-দুই টাকা পর্যন্ত বেড়েছে।

 

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫