ঢাকা, শনিবার,২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭

ইউরোপ

স্বৈরতান্ত্রিক দেশগুলোর কাছে অস্ত্র বিক্রি বাড়াল ব্রিটেন

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৭,সোমবার, ১৫:২৪


প্রিন্ট
স্বৈরতান্ত্রিক দেশগুলোর কাছে অস্ত্র বিক্রি বাড়াল ব্রিটেন

স্বৈরতান্ত্রিক দেশগুলোর কাছে অস্ত্র বিক্রি বাড়াল ব্রিটেন

ব্রিটেন গত ২২ মাসে রফতানি করেছে প্রায় পাঁচ শ’ কোটি পাউন্ড স্টারলিং সমপরিমাণ অস্ত্র। রক্ষণশীল দল নির্বাচনে জয়ী হয়ে ক্ষমতার আসার পর অস্ত্র রফতানির ব্যবসা দেশটিতে রমরমা হয়ে ওঠে। এ সব অস্ত্রের প্রধান ক্রেতা সৌদি আরবসহ আরো কয়েকটি সরকার।

সৌদি আরবের কাছে দীর্ঘ দিন ধরেই অস্ত্র বিক্রি করেছে ব্রিটিশ সরকার। ক্ষমতায় আসা আগে ব্রিটেনের কাছ থেকে ৬৮ কোটি পাউন্ড স্টারলিংয়ের অস্ত্র কিনেছে সৌদি আরব। কিন্তু গত ২২ মাসে এ অস্ত্র কেনার পরিমাণ বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় ১২০ কোটি পাউন্ড স্টারলিং। ব্রিটিশ সরকার এবারে বিশ্বের অন্যান্য স্বৈরতান্ত্রিক দেশেও অস্ত্র বিক্রির তৎপরতা বাড়িয়েছে বলে প্রাপ্ত তথ্যে দেখা যাচ্ছে।

পূর্ব লন্ডনের এক্সেলে প্রতিরক্ষা এবং নিরাপত্তা সরঞ্জাম সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক মেলার আগে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়। বিশ্বের এ ধরণের যে সব মেলা হয় তার মধ্যে এক্সেলের মেলাকে অন্যতম বৃহৎ হিসেবে গণ্য করা হয়। এ মেলায় অংশ নেয়ার জন্য ব্রিটিশ সরকার যে সব দেশকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে তাদের মধ্যে রয়েছে মিশর, বাহরাইন এবং সৌদি আরব।

এদিকে, ব্রিটেন সে সব দেশের কাছে অস্ত্র রফতানি করছে তাদের সবারই মানবাধিকার সংক্রান্ত রেকর্ড বিতর্কিত বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ান।

এ ছাড়া, মানবাধিকার কর্মীরা সংযুক্ত আরব আমিরাতের কাছে অস্ত্র বিক্রি বন্ধের দাবি করছে। দেশটির মানবাধিকার সংক্রান্ত রেকর্ডের ভিত্তিতে এ দাবি করা হয়। সাইবার নজরদারি সংক্রান্ত প্রযুক্তি দেশটির কাছে বিক্রির বিষয়ে ব্রিটিশ সরকার আলোচনা করছে। এ প্রযুক্তি দেশটির মানুষের ওপর অহেতুক নজরদারিতে ব্যবহার হয় বলে অভিযোগ করছেন তারা।

মিয়ানমারে 'জাতি নির্মূল' চলছে : জাতিসঙ্ঘ

জাতিসঙ্ঘ জানিয়েছে, মিয়ানমারে 'জাতি নির্মূল' অভিযান চলছে। সেখানে যে কায়দায় অভিযান চালানো হচ্ছে, তা পুরোপুরি জাতি নির্মূলের সংজ্ঞার আওতায় পড়ে।
মানবাধিকার সংগঠনগুলো অনেক আগে থেকেই রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনী এবং মিলিশিয়া গ্রুপগুলো জাতি নির্মূল অভিযান চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করে আসছিল। এবার খোদ জাতিসঙ্ঘও একই অভিযোগে অভিযুক্ত করল মিয়ানমারকে।
জাতিসঙ্ঘ মানবাধিকার প্রধান জায়েদ রাদ আল হোসাইন রাখাইন রাজ্যে ‌'নির্দয় সামরিক অভিযান' বন্ধ করার জন্য মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
গত মাসের শেষ দিকে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে তিন লাখ রোহিঙ্গা মুসলিম মিয়ানমার ছেড়ে পালিয়েছে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫