স্বামী কথা না বলায় স্ত্রীর মামলা

নয়া দিগন্ত অনলাইন

সবে মাত্র বিয়ে হয়েছে তাদের। খুনসুটিতে সময়গুলো কিভাবে কেটে যাবে তা খেয়াল থাকবে না নব দম্পতির। এমনটাই তো হওয়ার কথা। কিন্তু হলো উল্টো। প্রতিটি মুহূর্ত নববধূর কাটল মন খারাপ করে! কারণ? কারণ নববধূর সাথে কোনো কথা বলছেন না স্বামী। দিনের পর দিন এই যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে অবশেষে স্বামীর বিরুদ্ধে মানসিক নি‌র্যাতনের মামলা ঠুকে দেন স্ত্রী।

ঘটনা ভারতের হায়দরাবাদের।

মামলাটি আদালতে উঠার পর তদন্ত হলো। এরপর সুপ্রিম কোর্ট যে রায় দিলো তাতে খুশি হতে পারলেন না সেই গৃহবধূ। কারণ আদালত জানিয়েছে, স্ত্রীর সাথে স্বামীর কথা না বলাটা কোনো নির্যাতনের মধ্যে পড়ে না।

ওই গৃহবধূর অভি‌যোগ ছিল, বিয়ের পর ২০ দিন তার সাথে কোনো কথা বলেননি স্বামী। একা শ্বশুরবাড়িতে দিন কাটাতে হয়েছে তাকে।

তার দাবি, স্বামী তাকে এড়িয়ে ‌যাচ্ছিলেন। এর পরই সাইবারাবাদ পুলিশের কাছে অভি‌যোগ দায়ের করেন তিনি।

বিষয়টি সুপ্রিম কোর্ট প‌র্যন্ত গড়ালে বিচারপতি অরুণ মিশ্র ও বিচারপতি এস মোহনের বেঞ্চ জানায়, ৪৯৮ এ ধারা অনুসারে স্ত্রীর সাথে কথা না বলা কোনো নি‌র্যাতনের প‌র্যায়ে পড়ে না। বিয়ে করলে স্ত্রীর সাথে কথা বলতেই হবে এমন কোনো বাধ্যবাধকতা নেই।

সম্প্রতি বধূ-নি‌র্যাতনের ধারায় একাধিক পরিবর্তন করেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। ধারাটির লাগাতার অপব্যবহার রুখতে সরাসরি গ্রেফতারির দরকার নেই বলে জানিয়ে দিয়েছিল আদালত।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.