ফেসবুকের প্রতিদ্বন্দ্বী টেনসেন্ট
ফেসবুকের প্রতিদ্বন্দ্বী টেনসেন্ট

ফেসবুকের প্রতিদ্বন্দ্বী টেনসেন্ট

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর বড় বাজার চীন। কিন্তু নিরাপত্তা ইস্যুকে কেন্দ্র করে দেশটিতে ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম এবং স্ন্যাপচ্যাটের কার্যক্রম বন্ধ। চীনে সামাজিক নেটওয়ার্কিং ও মেসেজিং প্লাটফর্ম খাতজুড়ে আধিপত্য বিস্তার করে আছে চীনের ইন্টারনেট কোম্পানি টেনসেন্ট। চীনের সোস্যাল মিডিয়া জায়ান্ট টেনসেন্ট একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করে আছে। রাজস্ব ও নিট আয় বিবেচনায় প্রতিষ্ঠানটি এরই মধ্যে ফেসবুকের সমপর্যায়ে পৌঁছেছে।

সামাজিক যোগাযোগ এবং মেসেজিং সেবা খাতে প্রতিষ্ঠানটির উইচ্যাট, কিউকিউ ও কিউজোনের মতো প্লাটফর্মগুলোর ব্যবহারকারী কয়েক শ’ মিলিয়ন ছাড়িয়েছে। কারণ ফেসবুকের মতোই সামাজিক যোগাযোগ খাতের একাধিক সেবা পরিচালনা করছে টেনসেন্ট। যদিও চীনের বাজারে এ সেবাগুলো ব্যাপক জনপ্রিয় হলেও বিশ্ববাজারে খুব বেশি পরিচিত নয়।

চলতি বছরের প্রথমার্ধে ফেসবুকের রাজস্ব ও নিট আয় দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৭৪০ ও ৭০০ কোটি ডলার। একই সময় টেনসেন্টের রাজস্ব ও নিট আয় দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৫৭০ ও ৪৮০ কোটি ডলার। এই পেক্ষাপটে টেনসেন্ট বাজার মূলধন বিবেচনায় গত বছর শেষে চীনের বৃহৎ ইন্টারনেট কোম্পানির তকমা লাগিয়েছে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.